জয়ের সুযোগ কাজে লাগাতে চায় টাইগাররা

image_2035_257496স্পোর্টস রিপোর্টার : চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২৪৮ রানে গুটিয়ে দিয়েছিল টাইগাররা। এরপর দ্বিতীয় দিন ভালোভাবে কাটিয়েছে মুশফিক বাহিনী। দ্বিতীয় দিন শেষে টাইগারদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৭৯ রান। আর এ পরিস্থিতে টেস্ট ম্যাচের সফলতার ৬০ ভাগ নিজেদের পক্ষে রয়েছে দাবি করেছেন বাংলাদেশ দলের ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সেই সঙ্গে তিনি জানান, এ টেস্ট জয়ের সুযোগটা কাজে লাগাতে চায় টাইগাররা। গতকাল প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি। অবশ্য এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলিং কোচ ল্যাঙ্গেভেল্ট বলেছিলেন প্রথম টেস্টের ৬০ ভাগ বাংলাদেশের দখলে। মাহমুদউল্লাহ বলেন, আজকে আরো কিছুক্ষণ খেলে লিড নিতে পারলে ভালো হতো। কারণ প্রথম ইনিংসের উপর নির্ভর করবে আমরা ম্যাচে আছি নাকি নেই। আমরা বর্তমানে মোটামোটি ভাল অবস্থানে আছি। প্রথম ইনিংসে ভালো করতে পারলে দক্ষিণ আফ্রিকা দারুন চাপে থাকবে। তিনি বলেন, আমি মনেকরি ম্যাচ জয়ে আমরা এগিয়ে আছি। ৬০ ভাগ আমাদের দিকে ৪০ ভাগ তাদের দিকে। এছাড়া আমাদের ব্যাটিং লাইনটা অনেক বড়। অনেক ব্যাটসম্যান রয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর এটি অনেক বড় সুযোগ। সুযোগ বারবার আসে না। আর আমরা এ সুযোগটাকে কাজে লাগাতে চাই। প্রথম টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৬৭ রানের ইনিংস খেলেছে মাহমুদউল্লাহ।
বড় পার্টনারশিপ না হওয়ায় রিয়াদের আক্ষেপ : চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনটা ভালই শুরু করেছিলেন তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস। কিন্তু দলীয় ৪৬ রানে ডি ককের হাতে স্টাম্পিং হয়ে সাজঘরে ফিরেন ইমরুল। এরপর তামিমের সঙ্গে মাঠে আসেন কক্সবাজারের ছেলে ম?ুমিনুল। মুমিনুলও বড় কোন জুটি করতে পারেন নি তামিমের সঙ্গে। চতুর্থ উইকেটে মাহমুদউল্লাহ ও তামিম রানের চাকা কিছুটা সচল করলেও বড় হয়নি পার্টনারশিপ। আর তামিমের সঙ্গে বড় পার্টনারশিপ গড়ে তুলতে না পারায় আক্ষেপ করেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। গতকাল সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে আক্ষেপের কথা জানান এ অলরাউন্ডার। মাহমুদউল্লাহ বলেন, চট্টগ্রামের উইকেট টা অনেক স্লো ছিল। কষ্ট করে ব্যাটিং করতে হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকা খুব ভাল বল করেছে। তাই রান কম হয়েছে। আমি আর তামিম যখন ব্যাট করছিলাম তখন একটি টার্গেট ছিল বড় জুটি গড়ে তোলার। কারণ জুটি বড় হলে আমাদের জন্য ভাল হতো। তামিম আউট হয়ে গেল প্রথমে। এরপর আমিও আউট হয়ে গেলাম। তবে মুশফিক ও সাকিবকে নিয়ে আশাবাদি মাহমুদউল্লাহ বলেন, আমরা এখনো আশাবাদি যে সাকিব-মুশফিক মাঠে আছে। তারা বড় জুটির দিকে এগিয়ে যাবে। কারণ আমাদের একটি বড় পারটনারশিপ প্রয়োজন। রিয়াদ বলেন, আমি নরমাল ব্যাটিং করার চেষ্টা করেছি। দুর্বল বল গুলোর জন্য অপেক্ষা করেছি। আমরা জানতাম দক্ষিণ আফ্রিকা ভাল বল করবে। কারণ তারা বিশ্বের এক নম্বর দল। তাদের বিপক্ষে রান করা সহজ হবে না। আমাদেরকে সতর্কতার সাথে তাদের মোকাবেলা করার চেষ্টা ছিল। পার্টনারশিপটা বড় হলে আমাদের দলের জন্য ভালো হতো। চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৭৯ রান।
প্রথম ইনিংসে টাইগারদের লক্ষ্য ৪০০ রান : দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট ইতিহাসটা মধুর নয় বাংলাদেশের। প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে আট টেস্টে সাতটিতেই ছিল ইনিংস পরাজয়। তবে সেই ইতিহাসকে পাল্টে দিতে চায় টাইগাররা। কারণ তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ২-১ এ জিতে নিয়েছে তারা। আর প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ২৪৮ রানে প্রোটিয়াদের গুটিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে টাইগারদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৭৯ রান। আর প্রথম ইনিংসে সংগ্রহটা ৪০০ বা এর অধিক করতে চায় তারা। গতকাল সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, প্রথম ইনিংসটা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এ ইনিংসের উপর দলের জয় নির্ভর করবে। যদি আমরা প্রথম ইনিংসে ৪০০ বা এর অধিক রান করতে পারি তবে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানো সহজ হবে। আর জয়ের এ সুযোগটা আমরা কাজে লাগাতে চাই। তিনি বলেন, কালকের ইনিংসটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এ সেশনের উপর নির্ভর করবে আমরা কত রান সংগ্রহ করতে পারছি। যদি বিনা উইকেটে প্রথম সেশনটা পার করতে পারি তবে বড় স্কোর করতে পারব। আমাদের ব্যাটসম্যানরা চড়াও হয়ে বসতে পারবে। এ স্লো উইকেটে প্রথম ইনিংসে যদি ৪০০ বা এর উপরে করতে পারি তবে খুব ভাল হবে বাংলাদেশের জন্য। আউট হয়ে নিজে খুবই আশাহত উল্লেখ করে রিয়াদ বলেন, আউট হওয়ায় হতাশ ছিলাম। চেষ্টা করেছিলাম দিন শেষে নট আউট থাকতে। এছাড়া বৃষ্টিও আসতে পারে। আজকে খুব ভাল ফিল করছিলাম। ভাল রিদমও ছিল। মনে হয়েছিল আজকে বড় একটি ইনিংস খেলতে পারব।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪