**   একজন সর্বোচ্চ তিনটি আসন থেকে নির্বাচনের বিধানের সংশোধনী আনতে সুপারিশ **   উলিপুরে শিলাবৃষ্টিতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি **   কুড়িগ্রামে রাস্তা সংস্কার ও ধরলা নদীর ভাঙন থেকে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন-সমাবেশ **   উলিপুরে ভ্রাম্যামান আদালত অবৈধ ইটভাটার ৩০ হাজার টাকা জরিমানা **   ৯০জন শিল্পীর টানা ৯ ঘন্টার পরিবেশনা: কুড়িগ্রাম ভাওয়াইয়া উৎসব অনুষ্ঠিত **   শিশুমৃত্যু শূন্যে নামানোর অঙ্গীকার স্বাস্থ্যমন্ত্রীর **   বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ ১৬ জুন **   ‘শিগগিরই বাংলাদেশের অর্থনীতি ভারত-তুরস্কের মতো হবে’ **   তারেককে নিয়ে কাদার মধ্যে পড়ে যাচ্ছে বিএনপি: শাহরিয়ার **   তিস্তা নিয়ে মমতার সঙ্গে বসবেন কাদের

দাতব্য ট্রাস্ট: খালেদার লিভ টু আপিল শুনানি ১ অগাস্ট

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা অফিস: জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম স্থগিত চেয়ে হাই কোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যে দুটি লিভ টু আপিল (আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) করেছেন, তার ওপর ১ অগাস্ট আপিল বিভাগে শুনানি হবে।
খালেদার করা আবেদন দুটি শুনানির দিন ধার্যে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার চেম্বার বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার এ দিন ঠিক করে দেন।
আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানিতে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী ও ব্যারিস্টার এম বদরুদ্দোজা বাদল। দুদকের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।
ব্যারিস্টার বাদল  বলেন, হাই কোর্টে আবেদন খারিজের বিরুদ্ধে করা লিভ টু আপিল দুটি শুনানির দিন ঠিক করতে আবেদন করা হয়। চেম্বার বিচারপতি আবেদন দুটি ১ অগাস্ট নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য দিন ঠিক করে দেন।
বিচারের শেষ পর্যায়ে থাকা ওই মামলায় তদন্ত কর্মকর্তাকে নতুন করে জেরার আবেদন নিম্ন আদালতে নাকচের পর মামলার কার্যক্রম স্থগিত চেয়ে খালেদা জিয়া হাই কোর্টে দুটি আবেদন করলে ১৫ মে তা খারিজ হয়। আদেশের অনুলিপি প্রকাশের পর এর বিরুদ্ধে ৩১ মে পৃথক দুটি লিভ টু আপিল করেন।
এর আগে ওই মামলায় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্য নিয়ে আপত্তি তুলে খালেদার আইনজীবীবীরা গত ১৭ এপ্রিল নতুন করে সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরার আবেদন করলে ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদার তা নাকচ করে দেন।
ওই আদেশে বাতিল চেয়ে পরদিন হাই কোর্টে দুটি আবেদন করেন বিএনপি চেয়ারপারসন। সেই আবেদনের ওপর শুনানি শেষে ১৫ মে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আমির হোসেনের বেঞ্চ তা খারিজ করে দেয়।
মামলার বৃত্তান্ত
জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে আসা ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ অগাস্ট তেজগাঁও থানায় এই মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।
খালেদা জিয়া ছাড়া অন্য চার আসামি হলেন- তার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএ-এর নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হারুনুর রশিদ ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি খালেদা জিয়াসহ চার জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। পরের বছরের ১৯ মার্চ অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে আসামিদের বিচার শুরু হয়।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪