**   শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে আফগানদের হারালো বাংলাদেশ **   সরকারি হাইস্কুলে পদোন্নতি: সিনিয়র শিক্ষক হচ্ছেন ৫৫০০ জন **   উলিপুরে বিজয়ের উল্লাসে বিজয় মঞ্চের কাজ শুরু **   কুড়িগ্রামে ‘অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ’ শীর্ষক উন্নয়ন কনসার্ট অনুষ্ঠিত **   উলিপুরে বিদ্যূৎস্পৃষ্টে অটোচালক নিহত **   আওয়ামী লীগকে ছাড়া জাতীয় ঐক্য হতে পারে না: কাদের **   ১০ জেলায় নতুন ডিসি **   দেবী রূপে অপু বিশ্বাস **   জাতিসংঘে রোহিঙ্গা নিয়ে বিশ্বের সমর্থন চাইবেন প্রধানমন্ত্রী  বৈঠক হতে পারে ট্রাম্পের সঙ্গে **   ভূরুঙ্গামারীতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মনোনয়নের দাবীতে পথ সভা, র‌্যালি অনুষ্ঠিত

রবিবার খালেদার জামিন কি হবে?

যুগের খবর ডেস্ক: দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন এক মাসের বেশি সময় ধরে কারাগারে আটক রয়েছেন। বিচারিক আদালত থেকে হাইকোর্টে রবিবার মামলার নথি আসার কথা। সেই নথির আসার ওপরই আটকে আছে খালেদা জিয়ার জামিনের আদেশ। রাজনৈতিক মহলসহ জনমনে আলোচনা চলছে,  কি খালেদা জিয়ার জামিন মিলবে? তার আইনজীবী ও বিএনপি নেতারা অবশ্য প্রত্যাশা করছেন আজকেই বিএনপি চেয়ারপারসন জামিন পাবেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে এই মামলায় খালেদা জিয়ার অন্যতম আইনজীবী ও বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, ‘আইন যদি তার নিজস্ব গতিতে চলে তাহলে তিনি (খালেদা জিয়া) আজ জামিন পাবেন। কারণ তিনি দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত নন। তাকে ৫ বছরের কনভিকশন দেওয়া হয়েছে পেনাল কোডের অধীনে রেগুলার আইনে।’
তিনি আরও বলেন, কাউকে কনভিকশন দিলে জামিনের জন্য যে বিষয়গুলো বিবেচনায় আনা হয় তা হচ্ছেÑ বয়স, মহিলা কিংবা পুরুষ, সামাজিক অবস্থান এবং শারীরিক সুস্থতা। এছাড়াও সাজার মেয়াদকালও জামিনের বিষয়ে মূল বিবেচ্য। এই বিষয়গুলো বিবেচনায় আনলে বিএনপি চেয়ারপারসন অবশ্যই জামিন পাওয়ার অধিকার রাখেন।’
বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার আজকালের খবরকে বলেন, ‘উচ্চ আদালতের প্রথানুযায়ী সাত বছর পর্যন্ত সাজা হলে একক বেঞ্চেই জামিন দিতে পারেন। তারপরেও দুদকের আইন অনুযায়ী দ্বৈত বেঞ্চে শুনানি হয়েছে। (আগামীকাল) রবিবার নথি পাওয়া  সাপেক্ষে আদেশ হবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমরা মনে করি- দেশে যদি সামান্যতম আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা থাকে তবে খালেদা জিয়া জামিন পাবেন। উচ্চ আদালতের প্রতি সেই আস্থা আমাদের রয়েছে।’
এই প্রসঙ্গে বিচারপতি ইনায়েতুর রহিমের একটি বক্তব্যের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে তৈমুর আলম বলেন, তিনি বিচারপতি হিসেবে শপথ নেওয়ার সময় বলেছিলেন- ‘বিচার অন্ধ হতে পারে কিন্তু বিচারপতি অন্ধ নয়’। তার সেই বক্তব্যে আস্থা রেখেই বলছি বিএনপি চেয়ারপারসন জামিন পাবেন।
গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর এবং বিএনপির বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ পাঁচজনের ১০ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত। ওইদিন থেকে খালেদা জিয়া পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে আছেন। এরপর রায়ের পর অনুলিপি পাওয়ার জন্য আদালতে আবেদন করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। এর ১১ দিনের মাথায় ১৯ ফেব্রুয়ারি আদালত রায়ের অনুলিপি দেন। ওই দিনেই বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। আপিল শুনানির জন্য গৃহীত হওয়ার পরদিনই খালেদা জিয়া হাইকোর্টে জামিন চান। ৮৮০ পৃষ্ঠার জামিন আবেদনে তার আইনজীবীরা বয়স, শারীরিক অবস্থা ও সামাজিক মর্যাদা বিবেচনাসহ ৩২টি যুক্তি দেখিয়ে খালেদা জিয়ার জামিন চান। এরপর ২৫ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের ওপর শুনানি শেষ হয়। সেইদিন বিচারিক আদালতের নথি আসার পর আদেশ দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান হাইকোর্ট। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ উভয় পক্ষের শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।
তবে ওইদিন শুনানিতে অংশ নিয়ে খালেদা জিয়ার জামিনের বিরোধিতা করে রাষ্ট্রপক্ষ। অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সেদিন বলেছিলেন, অপরাধের গভীরতা বিবেচনায় নিয়ে আপিলকারীর জামিন মঞ্জুর করা ঠিক হবে না। এতিমের টাকা খোয়া যাওয়ার মামলায় খালেদা জিয়াকে জামিন দেওয়া হলে আপিলের শুনানি আর কখনওই সম্ভব হবে না। এজন্য বিশেষ ব্যবস্থায় পেপারবুক করে দ্রুত মূল আপিলের শুনানি করা দরকার।
একইসঙ্গে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবীদের পক্ষ থেকেও জামিনের বিরোধিতা করা হয়। তখন আদালত বলেছিলেন, সাত বছর পর্যন্ত সাজাপ্রাপ্ত যেকোনো ব্যক্তিকে এই আদালত (হাইর্কোট) জামিন দিতে পারেন।  খালেদা জিয়া পাঁচ বছরের জন্য সাজা পেয়েছেন।  তাই তাকে আদালত জামিন দিতে পারেন।  তারপরও তিনি নারী ও বয়স্ক। তিনি জামিন পেতে পারেন।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪