রাজধানীর অন্যতম মাদক ক্যাম্পে র‌্যাবের অভিযানে ৭৭ জনের সাজা

rab

যুগের খবর ডেস্ক: রাজধানীর অন্যতম ‘মাদক স্পট’ হিসেবে পরিচিত মোহাম্মদপুরের জেনেভা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটলিয়ন (র‌্যাব)। শনিবার (২৬ মে) র‌্যাবের কয়েকটি দল অভিযান চালিয়ে জেনেভা ক্যাম্প থেকে মাদক ব্যবসায় জড়িত অভিযোগে ৭৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা ও ৭৭জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা, হেরোইন, ফেনসিডিল, গাঁজাসহ বিভিন্ন ধরনের মাদক দ্রব্য। আটকে পড়া পাকিস্তানিদের ক্যাম্পই জেনেভা ক্যাম্প নামে পরিচিত। এ ক্যাম্পে মাদকের কেনা-বেচার অভিযোগ দীর্ঘদিনের।

অভিযান শেষে র‌্যাবের নির্বাহী হাকিম সারোয়ার আলম বলেন, আমরা ৪৫০ জনকে আটক করি। যাচাই-বাচাই করে ৩শ’জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার সকাল ১১টার কিছু আগে গোটা জেনেভা ক্যাম্প শত শত র‌্যাব সদস্য ঘিরে ফেলেন। ক্যাম্পে যাতায়াতেও নিয়ন্ত্রণ আনা হয়। তারপর ছোট ছোট ঘরগুলিতে র‌্যাব অভিযান চালায়। অভিযানে মাদক উদ্ধারে বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ডগ স্কোয়াড ব্যবহার করা হয়। অভিযানে ৪৫০ জনকে আটক করা হয়।

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের প্রধান উইং কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান সাংবাদিকদের বলেন, জেনেভা ক্যাম্প বহু আগে থেকেই মাদকপল্লী হিসেবে পরিচিত। এখানে এর আগেও আমরা কয়েকবার মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করতে এসে প্রতিকূল পরিবেশের কারণে ফিরে যেতে হয়েছে। এখানে রাস্তাঘাটগুলো সরু। এলাকাটা খুবই ঘিঞ্জি। ঝুঁপড়ি ঘরগুলোতে অভিযান চালাতে বেশ বেগ পেতে হতো। এ কারণেই আমরা পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়ে অভিযানে পরিচালনা করি।

র‌্যাব-২-এর অধিনায়ক আনোয়ার উজ জামান, আটকের পর প্রায় ৩শ’ ব্যক্তিকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তাদের বিষয়ে তথ্য যাচাই-বাছাই করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকিদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অপরাধ অনুযায়ী শাস্তি দেওয়া হচ্ছে। তিনজন ম্যাজিস্ট্রেট মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছেন। তিনি বলেন, আমরা প্রায় ১৫ হাজার পিস ইয়াবা এবং ১০০ কেজি গাঁজা জব্দ করেছি। অভিযুক্তদের মধ্যে তিন বা চারজন নারীও রয়েছেন। অভিযুক্ত ৭৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা ও ৭৭জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে।

অভিযানে অংশ নেওয়া র‌্যাব কর্মকর্তারা বলছেন, কয়েকদিন ধরেই সাদা পোশাকে র‌্যাব সদস্যরা সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে। এরপর সার্বিকভাবে অভিযান চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ঢাকাস্থ র‌্যাবের-১, ২, ৩, ৪, ১০ ব্যাটালিয়নসহ সদর দফতরের একটি টিম মিলে এ অভিযান চালানো হয়। এসময় র‌্যাবের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। তবে জেনেভা ক্যাম্পের দুর্র্ধষ মাদক ব্যবসায়ী ইসতিয়াক, ষোল ও পঁচিশের বাসায় অভিযান চালিয়ে তাদের পাওয়া যায়নি। জানা গেছে, মোহাম্মদপুর জেনেভা ক্যাম্প মাদক বিক্রির অন্যতম স্পট। এখানে অভিযান চালাতে গিয়ে বিভিন্ন সময়ে বিপাকে পড়তে হয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে। এখানে মাদক বিক্রেতারা এতটাই সংঘবদ্ধ যে, তারা একজোট হয়ে হামলাও করেছে। গত ৪ মে থেকে র‌্যাব এবং ১৮ মে থেকে পুলিশ সারাদেশে মাদকবিরোধী সাঁড়াশি অভিযান শুরু করে।

আটককৃতদের একজন সাউথ ইস্ট ইউনিভারসিটির শিক্ষার্থী ফাহমিদা। বাসা জেনেভা ক্যাম্পের সি ব্লকে। মা বানু বলেন, সকালে বাসার সবাই ঘুমে ছিল। তখন আমার মেয়েকে ধরে নিয়ে গেছে র‌্যাব। ধানমন্ডির একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাইদুল হাওলাদার নয়ন (২৩)। তার ভাবি সুলতানা টগর বলেন, ভাইয়ের বাসায় বেড়াতে এসেছিল নয়ন। সেখান থেকে সকাল ১১টার দিকে তাকে ধরে নিয়ে গেছে।

গাড়ি চালক বাদলের মা নাসিমা বেগম বলেন, সকাল ১১টার দিকে তার ছেলে কাজে যাওয়ার সময় র‌্যাব সদস্যরা তাকে আটক করে নিয়ে যায়। সেলুন কর্মী রাজার (২৮) মা শাহিদা বেগম বলেন, বিহারি ক্যাম্পে বাসা থেকে বেলা ১১টার দিকে আমার ছেলেকে ধরে নিয়ে গেছে। কারচুপির ব্যবসায়ী পারভেজের (৩৫) স্ত্রী শবনম বলেন, বিহারি ক্যাম্পের বাসা থেকে সকালে বাইরে বের হয়েছিল আমার স্বামী। এসময় তাকে ধরে নিয়ে গেছে। অভিযানের ব্যাপারে জেনেভা ক্যাম্পের পাশের দোকানদার আলম হোসেন বলেন, এখানে প্রকাশ্যেই দিনের বেলায়ও মাদক বেচাকেনা হয়। এক শ্রেণির তরুণ পলিথিনে মুড়িয়ে প্রকাশ্যে হাতে নিয়ে ইয়াবা ও হেরোইন বিক্রি করে। মাদকবিরোধী অভিযানের কারণে গত কয়েকদিন ধরে তাদের দেখা যাচ্ছে না।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪