ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ উত্তর কোরিয়া

tram
যুগের খবর ডেস্ক: কোরীয় উপদ্বীপ পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত করতে এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে পরিকল্পিত বৈঠকের বিষয়ে নিজের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন এমনই নিশ্চতয়তা দিয়েছেন। অপরদিকে ওয়াশিংটনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কিমের সঙ্গে ১২ জুনের শীর্ষ বৈঠকের জন্য প্রস্তুতি এগিয়ে চলেছে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন যদিও এর আগে বৈঠকটি বাতিল করার ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি। রয়টার্স।

সিউলের ওই সংবাদ সম্মেলনে দক্ষিণ কোরীয় প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন জানান, গত শনিবার উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সঙ্গে বৈঠকে উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ কমর্কতারা বৈঠকটি অনুষ্ঠিত ‘হতে হবে’ বলে তিনি ও কিম একমত হয়েছেন। গত শনিবার স্থানীয় সময় বিকালে দুই কোরিয়ার সীমান্তবর্তী অসামরিক গ্রাম পানমুনজোমে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন এক আকস্মিক বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন। দুই দেশের র্শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের মধ্যে আলোচনা হয়। সংবাদ সম্মেলনে মুন বলেছেন, ‘চেয়ারম্যান কিম ও আমি একমত হয়েছি যে, ১২ জুনের শীর্ষ সম্মেলন সাফল্যজনকভাবেই হওয়া উচিত এবং কোরীয় উপদ্বীপের পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের অভিষ্ট এবং চিরস্থায়ী শান্তির শাসনের সম্ভাবনা রুদ্ধ করা উচিত নয়।’ যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার নজিরবিহীন শীর্ষ বৈঠককে কেন্দ্র করে সপ্তাহজুড়ে চলা কূটনৈতিক উত্থান-পতনের পর পানমুনজোমের বৈঠকটি ঘটনায় সর্বশেষ নাটকীয় মোড় সৃষ্টি করেছে। পানমুনজোমের বৈঠক থেকে জোরালোভাবে এ ইঙ্গিত পাওয়া গেছে যে কিম-ট্রাম বৈঠকের সম্ভাবনা ধরে রাখতে কোরিয়ার নেতারা আন্তরিকভাবে চেষ্টা করছেন।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানিয়েছে, ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকের সম্ভাবনার বিষয়ে পূর্বপরিকল্পনা মতোই ‘তার অটল ইচ্ছার’ কথা জানিয়েছেন কিম। ১২ জুন সিঙ্গাপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিমের ঐতিহাসিক বৈঠকের তারিখ নির্ধারিত হয়েছিল। কিন্তু মার্কিন নেতাদের বিভিন্ন মন্তব্যে ক্ষিপ্ত উত্তর কোরিয়া বৈঠক বাতিল করার হুমকি দেয়। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র-উত্তর কোরিয়া শীর্ষ বৈঠকের সম্ভাবনা বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টায় তৎপরতা শুরু করেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন। ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে ওয়াশিংটন যান তিনি। গত বৃহস্পতিবার সকালে ওয়াশিংটন থেকে সিউলে ফিরে মুন জানান, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে শত্রুতামূলক সম্পর্কের ইতি টানতে ও দ্বীপাক্ষিক অর্থনৈতিক সহযোগিতা শুরু করতে ট্রাম্পের একটি ‘দৃঢ়’ বার্তা পাঠিয়েছেন। কিন্তু ওই দিনই কিমকে দেয়া এক চিঠিতে উত্তর কোরিয়ার ‘শত্রুতামূলক’ মনোভাবের কথা উল্লেখ করে সিঙ্গাপুরের শীর্ষ বৈঠক বাতিলের ঘোষণা দেন ট্রাম্প। ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্র-উত্তর কোরিয়া বৈঠক বাতিল ঘোষণার পরই উত্তর কোরিয়া সংহতির সুরে বলেছিল, তারা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ‘যে কোন সময়’ আলোচনা করতে প্রস্তুত। গত শনিবার উত্তর কোরিয়ার এ সম্প্রীতিমূলক বিবৃতিকে স্বাগত জানিয়ে ট্রাম্প বৈঠকটি আবার হতে পারে বলে ইঙ্গিত দেন। তিনি বলেন, ‘উত্তর কোরিয়া খুবই চমৎকার বিবৃতি দিয়েছে। আমরা দেখব কী হয়- এটি (বৈঠক) ১২ জুনেও হতে পারে। গত শনিবার হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘আমরা এখন তাদের সঙ্গে কথা বলছি। তারা বৈঠক করতে খুবই ইচ্ছুক। আমরাও সেটি করতে পছন্দ করব।’ সম্ভাব্য শীর্ষ বৈঠকের প্রস্তুতি নিতে গতকাল হোয়াইট হাউসের একটি টিম পূর্ব পরিকল্পনা মতো সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে রওনা হওয়ার কথা।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪