ম্যাক্সে র‌্যাবের অভিযান, ১০ লাখ টাকা জরিমানা

Untitled-18-5b426490c8d93

যুগের খবর ডেস্ক: চট্টগ্রামের বিতর্কিত ম্যাক্স হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে অনিয়ম ও জালিয়াতির প্রমাণ পেয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল রোববার সকাল থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও ওষুধ প্রশাসনের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে পরিচালিত এ অভিযান শেষে ম্যাক্স হাসপাতালকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
একই দিনে বন্দর নগরীর আরও কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে অভিযান চালান র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অনিয়মের দায়ে সিএসসিআর হাসপাতালকে চার লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদন লেখার সময়ও অভিযান অব্যাহত ছিল।
এদিকে র‌্যাবের অভিযানের প্রতিবাদে গতকাল থেকে আবারও রোগীদের জিম্মি করে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট ডেকেছে চট্টগ্রাম বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান সমিতি। তাদের সঙ্গে একাত্মতা জানিয়েছে বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) চট্টগ্রাম শাখা। হুট  করে এমন কর্মসূচি ডাকায় বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনরা ব্যাপক ভোগান্তিতে পড়েছেন। অভিযান প্রসঙ্গে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম বলেন, কোনো ব্যক্তি কিংবা  .প্রতিষ্ঠানকে টার্গেট করে অভিযান চালানো হচ্ছে না। কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়। দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থায় ভুলত্রুটির কারণে রোগীরা দেশের বাইরে যাচ্ছেন। এই প্রবণতা ঠেকাতে চিকিৎসাসেবার ভুলত্রুটিগুলো চিহ্নিত করে সংশোধন করতে চাই। তাই ম্যাক্স হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়েছে এবং তাদের কর্মকাণ্ডে নানা ত্রুটি থাকায় ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
গতকাল ম্যাক্স হাসপাতালে র‌্যাবের অভিযানকালে সেখানে উপস্থিত হন বিএমএর চট্টগ্রাম শাখার বিতর্কিত সাধারণ সম্পাদক ড. ফয়সল ইকবাল। তিনি হাসপাতালের বাইরে গাড়িতে বসে পরিস্থিতি আঁচ করার চেষ্টা চালান। বিষয়টি চাউর হলে সাংবাদিকরা তার ছবি তুলতে যান। এমন পরিস্থিতিতে গাড়ি থেকে না নেমে দ্রুত সেখান থেকে চলে যান ফয়সল ইকবাল। এ ব্যাপারে তার মন্তব্যও পাওয়া যায়নি।
অভিযানকারী দলের সদস্য ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ম্যাক্স হাসপাতালে অভিযানকালে রোগ নির্ণয়ে জালিয়াতি, যথাযথ অনুমতি ছাড়া রোগীর রিপোর্ট বিদেশে পাঠানো ও লাইসেন্সবিহীন ফার্মেসি পরিচালনার প্রমাণ পাওয়া গেছে। বিভিন্ন ভুঁইফোঁড় বা অখ্যাত ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নমুনা পরীক্ষা করিয়ে সেগুলো ম্যাক্স হাসপাতাল ও ডায়গনস্টিক সেন্টারের প্যাডে প্রিন্ট করে রোগীদের সরবরাহ করা হয়। এ জন্য রোগীদের কাছ থেকে দ্বিগুণ অর্থ আদায় করা হয়। এ ছাড়া সরকারের যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়েই রোগীর নমুনা দেশের বাইরে পাঠানো হয়। ম্যাক্স হাসপাতালের অষ্টম তলায় অনুমোদিত ফার্মাসিস্ট ছাড়াই ফার্মেসি চালানো হচ্ছে। দেড় বছর আগে ওই ফার্মেসির অনুমোদনের মেয়াদও ফুরিয়ে গেছে। এ ছাড়া ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের নিবন্ধনও পাওয়া যায়নি। এসব অনিয়মের দায়ে ম্যাক্স হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এর আগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তদন্তেও হাসপাতালটির ১১টি ত্রুটি ধরা পড়ে।
ম্যাক্স হাসপাতাল ছাড়াও গতকাল আরও কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে অভিযান চালান র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় অপারেশন থিয়েটারে মেয়াদোত্তীর্ণ চিকিৎসা সরঞ্জাম, লাইন্সেসবিহীন ফার্মেসি পরিচালনাসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে সিএসসিআর হাসপাতালকে চার লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত এ অভিযান অব্যাহত ছিল।
অভিযানের প্রতিবাদে চিকিৎসকদের ডাকা ধর্মঘট প্রসঙ্গে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম বলেন, চিকিৎসা পাওয়া প্রত্যেক নাগরিকের মৌলিক অধিকার। কেউ তা ব্যাহত করলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যদি কেউ এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেন, আশা করছি তারা ফিরে আসবেন।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪