প্রভাবশালী সাবেক মন্ত্রীরা স্থান পেলেন সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে

1549467337
যুগের খবর ডেস্ক: বর্তমান সরকারের আমলে মন্ত্রিত্ব না পেলেও সংসদীয় কমিটির সভাপতির পদ পেয়েছেন সাবেক আট জন মন্ত্রী। বুধবার জাতীয় সংসদে গঠিত আটটি সংসদীয় কমিটির সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সরকারের সাবেক মন্ত্রীদের।
সাবেক মন্ত্রী আমীর হোসেন আমুকে শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি করা হয়েছে। সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, সাবেক মন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরীকে কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি করা হয়েছে। তোফায়েল আহমেদ ও আমীর হোসেন আমুর আগেও সংসদীয় কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালনের রেকর্ড থাকলেও প্রথমবারের মতো সংসদীয় কমিটির সভাপতি হলেন বেগম মতিয়া চৌধুরী।
সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলীকে করা হয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমকে করা হয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি। তিনিও সংসদীয় কমিটির সভাপতি হিসেবে প্রথমবারের মতো দায়িত্ব পেলেন।
সাবেক স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে একই মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি করা হয়েছে। তিনিও সংসদীয় কমিটির সভাপতি হিসেবে নতুম মুখ। সাবেক মন্ত্রী কর্নেল (অব.) ফারুক খানকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি করা হয়েছে।
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি করা হয়েছে শেখ ফজলুল করিম সেলিমকে। নবম ও দশম সংসদে তিনি একই মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। এর আগে তিনি একই মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন।
অর্থমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, প্রতিমন্ত্রী আব্দুস শহীদ, মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, নাজমুল হাসান পাপন, কাজী নাবিল আহমেদ, আহমেদ ফিরোজ কবির, বেগম সেলিমা আহমদ ও রানা মো. শৈয়ব।
শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, শিল্প মন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, এ কে এম ফজলুল হক, হাবিবুর রহমান মোল্লা, এ কে এম শামীম ওসমান, আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী (ডিউক), আবু রেজা মো, নেজামউদ্দীন নদভি, মো. শাহিদুজ্জামান ও কাজিম উদ্দিন আহমেদ।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুন্সি, আ ক ম বাহাউদ্দিন, মাহমুদুস সামাদ চৌধুরী, ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন, মো. হাছান ইমাম খান, তাহজীব আলম সিদ্দিকী, সেলিম আলতাফ জর্জ, লিয়াকত হোসেন খোকা।
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন মন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন, প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, আ ফ ম রুহুল হক, মহিবুর রহমান মানিক, মো. একরামুল করিম চৌধুরী, ডা. ইউনুছ আলী সরকার, মো. মনছুর রহমান, আব্দুল আজিজ।
খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন মন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, নুরুল ইসলাম নাহিদ, হাজী সেলিম, আতিউর রহমান আতিক, ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু, আব্দুল হাই, আয়েন উদ্দিন, আতাউর রহমান খান।
কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক, মু. ইমাজ উদ্দিন প্রামাণিক, মোসলেম উদ্দিন, ওমর ফারুক চৌধুরী, আব্দুল মান্নান, মামুনুর রশিদ কিরণ, আনোয়ারুল আবেদিন খান, জয়া সেনগুপ্ত।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা হলেন, ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, নুরুল ইসলাম নাহিদ, গোলাম ফারুক খন্দকার প্রিন্স, আব্দুল মজিদ খান, ডা. হাবিবে মিল্লাত, নাহিম রাজ্জাক, কাজী নাবিল আহমেদ, নিমাজ উদ্দিন জলিল।
স্থায়ী সরকার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা হলেন মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, সাবেক প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, শেখ আফিল উদ্দিন, রেবেকা মোমেন, রাজী মো. ফখরুল, মো. শাহে আলম, ছানোয়ার হোসেন, আব্দুস সালাম মুর্শেদী।
এই নিয়ে ১৮টি সংসদীয় কমিটি গঠন করা হলো। এর আগে ১০টি কমিটি গঠন করা হয়।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪