শম্পাসহ বোরকা পরা চারজন শনাক্ত হয়নি

05

যুগের খবর ডেক্স: ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় জড়িত বোরকা পরা চারজনকে এখনও শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। তাদের মধ্যে অন্তত দু’জন নারী এবং একজনের নাম শম্পা বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।

সেই ‘শম্পা’ সন্দেহে এক শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে, যার প্রকৃত নাম উম্মে সুলতানা পপি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় সোমবার সোনাগাজী থানায় মামলা দায়েরের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই আবার ‘নতুন’ এজাহার জমা দিয়েছেন বাদী।

দ্বিতীয় এজাহারে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এস এম সিরাজ-উদ-দৌলাসহ সন্দেহভাজন আটজনকে আসামি করা হয়েছে। আগের মামলায় বোরকা পরা অজ্ঞাতপরিচয় চারজনকে আসামি করা হয়েছিল। এ মামলায় গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে চারজনকে মঙ্গলবার পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক মঙ্গলবার সোনাগাজীর ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা পরিদর্শনের পর সাংবাদিকদের বলেন, শম্পা নামের একটি মেয়েকে খোঁজা হচ্ছে। তবে এখনও তার হদিস পাওয়া যায়নি। ডিআইজি ঘটনার সময় পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন ও রাফিকে উদ্ধার করা পুলিশ সদস্য রাসেলের সাক্ষ্য নেন। এ ছাড়া ডিআইজিকে ঘটনার বর্ণনা দেওয়ার জন্য পরীক্ষায় অংশ নেওয়া ১৯ ছাত্রীকে থানায় হাজির করা হয়।

রাফিকে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে করা মামলার নতুন এজাহারে আট আসামির নাম উল্লেখ করা হয়েছে। তারা হলেন- সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এস এম সিরাজ-উদ-দৌলা, তার অনুসারী নূর উদ্দিন, শাহাদাত হোসেন শামীম, কাউন্সিলর মাকসুদ আলম, জোবায়ের আহম্মেদ, জাবেদ হোসেন, হাফেজ আবদুল কাদের ও প্রভাষক আফছার উদ্দিন।

তাদের সম্পর্কে এজাহারে বলা হয়েছে, ২৭ মার্চ রাফির শ্নীলতাহানির ঘটনায় মামলা করার পর থেকে এই আটজনসহ অজ্ঞাত আরও অনেকে মামলা তুলে নিতে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিলেন। তারা অভিযুক্ত অধ্যক্ষের পক্ষে সোনাগাজী বাজারে মানববন্ধনও করেছেন। অধ্যক্ষের নির্দেশে আসামিরা পরস্পরের যোগসাজশে বোরকা পরা চারজনকে দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে রাফির শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। এ ছাড়া আগুন দেওয়ায় জড়িত হাতমোজা, চশমা ও বোরকা পরা চারজনসহ অজ্ঞাত আরও অনেককে মামলায় আসামি করা হয়েছে।

কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে দুই এজাহার: রাফি অগ্নিদগ্ধ হওয়ার দু’দিন পর সোমবার দুপুরে এ ঘটনায় মামলা দায়ের করেন তার ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান। এর কয়েক ঘণ্টা পর বিকেলেই নতুন এজাহার জমা দেন বাদী। এ নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

চাঞ্চল্যকর ঘটনায় মামলা দায়েরে বিলম্ব ও একই দিনে দুই এজাহারের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ফেনীর পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম সরকার বলেন, ঘটনার পর মেয়েটিকে নিয়ে তার মা ও ভাইসহ পরিবারের সদস্যরা ঢাকায় চলে যান। সোনাগাজী পৌর এলাকায় তাদের বাড়ি ছিল তালাবদ্ধ। এ অবস্থায় ভুক্তভোগীর এক চাচাকে মামলা করতে বলে পুলিশ। তখন ঢাকায় অবস্থানরত নোমান নিজেই ফেনীতে গিয়ে মামলা করার কথা জানান। পরে সোমবার তিনি মামলা করেন।

পাঁচ দিনের রিমান্ড: সন্দেহভাজন চারজনকে মঙ্গলবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সরাফ উদ্দিন আহামদের আদালতে হাজির করে পুলিশ। তাদের সাত দিন করে রিমান্ড চাওয়া হয়। শুনানি শেষে আদালত প্রত্যেকের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ফেনী জেলা ডিবির ওসি রাশেদ খান চৌধুরী জানান, উম্মে সুলতানা পপি নামের এক আলিম পরীক্ষার্থীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনা হয়েছে। তিনি অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলার শ্যালিকার মেয়ে।

সোনাগাজী থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, এজাহারভুক্ত আসামিদের মধ্যে সিরাজ-উদ-দৌলা ও আফসার উদ্দিন গ্রেফতার হয়েছে। তবে আটকদের মধ্যে মোস্তফা ও নুরুল আমিনের সম্পৃক্ততা না পাওয়ায় তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের তদন্ত কমিটি: ফেনী জেলা প্রশাসন ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট পি কে এম এনামুল করিমকে প্রধান করে গঠিত কমিটির অপর সদস্যরা হলেন জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কাজী সলিম উল্লাহ ও সোনাগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহেল পারভেজ। কমিটিকে তিন দিনের মধ্যে রিপোর্ট দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুজ্জামান।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪