আজকের তারিখ- Sun-28-11-2021

ঢাকা মহানগরের রাজনীতি তৃণমূল থেকে ‘যোগ্য’ নেতৃত্ব সৃষ্টির চেষ্টা বিএনপি

যুগের খবর ডেস্ক: ঢাকা মহানগরে তৃণমূল থেকে নেতৃত্ব সৃষ্টির চেষ্টা করছে বিএনপি। এজন্য ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণে ওয়ার্ড পর্যায় থেকে ‘রাজপথের যোগ্য’ নেতাদের দিয়ে কমিটি গঠনের কাজ শুরু করেছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। তাদের ভাষ্য, তৃণমূলে ‘যোগ্য’ নেতৃত্বের মাধ্যমে আন্দোলনমুখী কমিটি গঠন করতে চান নীতিনির্ধারকরা। তবে প্রশাসনিক বাধার কারণে সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা ও কর্মিসভা করতে পারছেন না। কয়েকজন নেতা জানান, বাধাবিপত্তির পরেও আগামী এক মাসের মধ্যে মহানগর বিএনপির সব ওয়ার্ড কমিটি গঠন করতে বিএনপির শীর্ষ পর্যায় থেকে তাগিদ রয়েছে। ওয়ার্ড কমিটি করার পর থানা কমিটি গঠনের কার্যক্রম শুরু করা হবে। সব মিলিয়ে আগামী তিন মাসের মধ্যে ওয়ার্ড থেকে শুরু করে থানা ও মহানগর বিএনপিকে কাউন্সিলের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এজন্য প্রতি মাসে মহানগর বিএনপির নেতাদের সঙ্গে কাজের পর্যালোচনা বৈঠক করছেন দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। কমিটি গঠন প্রক্রিয়া তিনি সরাসরি নজরদারি করছেন। বিএনপির কয়েকজন জ্যেষ্ঠ নেতা জানান, ২০১৪ ও ২০১৫ সালের সরকারবিরোধী আন্দোলনে ঢাকা মহানগর বিএনপির ব্যর্থতা মাথায় রেখে এবার সংগঠনকে শক্তিশালী করতে নতুন পরিকল্পনা করা হযেছে। এবার তাই অপেক্ষাকৃত তরুণ ও অভিজ্ঞদের দিয়ে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গত ২ আগস্ট আব্দুস সালামকে আহ্বায়ক ও রফিকুল আলম মজনুকে সদস্য সচিব করে ৪৯ সদস্যের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এবং আমান উল্লাহ আমানকে আহ্বায়ক ও আমিনুল হককে সদস্য সচিব করে ৪৭ সদস্যের ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়।

বিএনপির কয়েকটি সূত্র জানায়, তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে নবগঠিত ঢাকা মহানগর বিএনপির কমিটিকে পূর্ণাঙ্গ করতে চান দায়িত্বশীল নেতারা। এজন্য ওয়ার্ড কমিটি করতে গত ২ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগর উত্তরে আটটি এবং ৯ সেপ্টেম্বর দক্ষিণে আটটি সাংগঠনিক টিম গঠন করা হয়। এসব সাংগঠনিক টিম ওয়ার্ড কমিটি গঠনে তৃণমূল পর্যায়ে পদপ্রত্যাশীদের কাছে দলের ফরম বিতরণ করে। এর মধ্যে মহানগর উত্তরে প্রায় ১৯ হাজার ফরম বিতরণ করা হয়েছে। অন্যদিকে মহানগর দক্ষিণে প্রায় ২১ হাজার ফরম বিতরণ করেন দায়িত্বশীল নেতারা। এসব ফরম সংগ্রহ করে তা যাচাই-বাছাই করে এবং কর্মিসভা করে যোগ্য নেতাদের বিষয়ে মতামত দিচ্ছে সাংগঠনিক টিম। তাদের মতামত এবং মাঠপর্যায়ে অবস্থান বিবেচনা করে মহানগর নেতারা কমিটি গঠন করার প্রক্রিয়া শুরু করেছেন।

বিএনপির নেতারা অভিযোগ করেন, কর্মিসভার আয়োজন করতে নানান বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন তারা। উত্তরের নেতারা জানান, তাদের অধীনে ৫৪টি প্রশাসনিক, ছয়টি আঞ্চলিক ওয়ার্ড এবং ২৬টি থানা রয়েছে। এর মধ্যে তারা ঘরোয়া পরিবেশে ৯টি ওয়ার্ডে কর্মিসভা করতে সক্ষম হয়েছেন। আবার ১০টি ওয়ার্ডে পুলিশি বাধায় করতে পারেননি। এমনকি গত ৩১ অক্টোবর তেজগাঁও এলাকায় গুম হওয়া বিএনপি নেতা সাজিদুল ইসলাম সুমনদের বাড়িতে দোয়া মিলাদ অনুষ্ঠানেও পুলিশ বাধা দিয়ে বেশ কয়েকজন নেতাকে ধরে নিয়ে যায়। এর আগে গত ২৩ অক্টোবর রাজধানীর উত্তরখানে ৪৪নং ওয়ার্ডে প্রথম কর্মিসভার আয়োজন করেও করতে পারেননি নেতারা। ২৫ অক্টোবর দারুস সালামে ৯ ও ১০নং ওয়ার্ডে ঘরোয়াভাবে কর্মিসভা সম্পন্ন করতে পারলেও ২৬ অক্টোবর বাড্ডার ১৭ ও ৩৯নং ওয়ার্ডের কর্মিসভা করতে পারেননি মহানগর নেতারা।

এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে দেখা করে কর্মিসভা করতে প্রশাসনের প্রয়োজনীয় সাহায্য চান মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির নেতারা। প্রশাসনের আশ্বাসের ভিত্তিতে আবার কাজ শুরু করেছেন মহানগর নেতারা।

মহানগর দক্ষিণ বিএনপির নেতারা জানান, তাদের অধীনে ৭৫টি ওয়ার্ড ও ২৪টি থানা রয়েছে। এসব ওয়ার্ডের আহ্বায়ক কমিটি গঠনে গঠিত সাংগঠনিক টিমের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এখন সংগঠনের জ্যেষ্ঠ নেতাদের উপস্থিতিতে কর্মিসভার কার্যক্রম চলছে।

দক্ষিণের নেতারাও অভিযোগ করেন, ফরম সংগ্রহ শেষে কর্মিসভার আয়োজন করার উদ্যোগ নেওয়া হলেও পুলিশের বাধায় তা অধিকাংশই সম্ভব হয়নি। আটটি ওয়ার্ডে কর্মিসভা করা সম্ভব হয়নি। আগামী ১৮ নভেম্বর থেকে ৪০টি ওয়ার্ডে কর্মিসভা করতে প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়ে এরই মধ্যে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির নেতারা জানান, ওয়ার্ড কমিটি গঠনের কাজকে তারা তিনটি শ্রেণিতে বিভক্ত করছেন। এর মধ্যে যেসব এলাকায় তেমন কোন্দল নেই, সেসব কমিটি তারা নিজেরাই শেষ করবেন। যেসব এলাকায় গ্রুপিং রয়েছে সেখানে বিবদমান অংশগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেবেন। আবার যেসব এলাকায় কমিটি গঠনে যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে, সেসব কমিটির বিষয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

নেতারা জানান, নতুন ওয়ার্ড কমিটির নেতাদের মতামতের ভিত্তিতে থানা পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হবে। সর্বশেষ থানা ও ওয়ার্ড নেতাদের ভোটে মহানগর কমিটি গঠন করা হবে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালাম সমকালকে বলেন, আমরা দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে প্রতিটি ওয়ার্ডে ফরম বিতরণ কার্যক্রম শুরু করি। এরপর যখনই কর্মিসভা করার উদ্যোগ নিই তখনই পুলিশি বাধার সম্মুখীন হতে থাকি। তবে পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে দেখা করার পর আমরা গত ৯ নভেম্বর থেকে আবারও নতুন উদ্যমে কাজ শুরু করেছি। এখনও কোনো বাধা পাইনি।

তিনি বলেন, যোগ্য ও ত্যাগীদের দিয়ে আগামীতে আন্দোলনমুখী কমিটি গঠনের বিষয়ে আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক বলেন, আমরা দেশের মানুষের ভোটের অধিকার এবং নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন করছি। এর জন্য বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নির্দেশনায় সংগঠনকে শক্তিশালী করতে তৃণমূল থেকে নেতৃত্ব বাছাইয়ের প্রক্রিয়া শুরু করেছি। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে আমরা আমাদের দায়িত্ব সম্পন্ন করতে পারব।

তিনি অভিযোগ করেন, মহানগর বিএনপির কার্যক্রম শুরুর দিন থেকেই বাধার মুখে পড়তে হচ্ছে। এমনকি ঘরোয়া পরিবেশে দোয়া মিলাদেও পুলিশ বাধা দিচ্ছে, নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করছে। তবে পুলিশ কমিশনার এ বিষয়ে আমাদের আশ্বস্ত করায় কিছুটা স্বস্তি পাচ্ছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল আমিন সরকার
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও মাচাবান্দা নামাচর, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ঢাকা অফিসঃ শ্যাডো কমিউনিকেশন, ৮৫, নয়া পল্টন (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা- ১০০০।
ফোনঃ ০৫৮২৪-৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩,
ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com, smnuas1977@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচিত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৯
Design & Developed By ( Nurbakta Ali )