আজকের তারিখ- Tue-18-01-2022

বঙ্গবন্ধু ও মুক্তারপুর সেতুর বর্ধিত টোল নেওয়া শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে

যমুনা নদীর বঙ্গবন্ধু সেতু এবং ধলেশ্বরী নদীর মুক্তারপুর সেতুর বর্ধিত টোল আদায় করা শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) রাত ১২টার পর থেকে। বুধবার সরকারের সেতু কর্তৃপক্ষের এক সংশোধিত গণবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। যদিও সম্প্রতি ধর্মঘটে পণ্য পরিবহন মালিক শ্রমিকদের অন্যতম দাবি ছিল, এই দুই সেতুর বর্ধিত টোল প্রত্যাহার করতে হবে।

যুগের খবর ডেস্ক: গত ২ নভেম্বর এ দুই সেতুর টোল গড়ে ১৭ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে সেতু বিভাগ। সেতু কর্তৃপক্ষ ১৭ শতাংশ টোল বাড়ানোর কথা বললেও বিশ্নেষণ করে দেখা গেছে, বড় পণ্যবাহী যানবাহনে ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ বেড়েছে।

এরমধ্যে গত সোমবার পৃথক প্রজ্ঞাপনে ওইদিনই রাত ১২টার পর থেকে সেতু দুটিতে বর্ধিত টোল কার্যকর হওয়ার কথা জানানো হয়। পরে আবার কিছুক্ষণের মধ্যেই সেতু বিভাগ থেকে জানানো হয়, আপাতত বর্ধিত হারে টোল আদায় করা হবে না। আগের হারে টোল দিয়ে যানবাহন চলতে পারবে। তবে বর্ধিত টোল প্রত্যাহার হয়নি। পরবর্তীকালে আদায় করা হবে। এর একদিন পরই আগের সিদ্ধান্ত এসেছে।

ডিজেলের দাম বৃদ্ধির পর বাসের পাশাপাশি পণ্য পরিবহনেও ধর্মঘট শুরু হয়। এরপর গত ৭ নভেম্বর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে সেই ধর্মঘট স্থগিত করা হয়। সেই বৈঠকের পর পরিবহন নেতারা জানিয়েছিলেন, সরকার ডিজেলের দাম কমাতে রাজি না হলেও দুই সেতুর বর্ধিত টোল আদায় স্থগিত রাখতে সম্মত হয়েছে।

সেই বৈঠকে অংশ নেওয়া ট্রাক-কাভার্ডভ্যান প্রাইম মুভার মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব তাজুল ইসলাম গত সোমবার সমকালকে বলেন, সরকার কথা দিয়েছিল বর্ধিত টোল আদায় করা হবে না। কিন্তু মালিক শ্রমিকদের অবহিত না করেই বর্ধিত টোল কার্যকর করা হচ্ছে। এর মাধ্যমে মালিক শ্রমিকদের আবার আন্দোলনে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। এমনিতেই ডিজেলের দাম বাড়ায় পরিবহন খরচ বেড়েছে।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে তিন এপেলের বড় ট্রাকের টোল ৪৩ শতাংশ বাড়িয়ে এক হাজার ৪০০ টাকা থেকে দুই হাজার টাকা করা হয়েছে। এতদিন চার এপেলের ট্রেইলারেও এক হাজার ৪০০ টাকা টোল নেওয়া হত। নতুন টোল হার অনুযায়ী, ট্রেইলারকে পৃথক শ্রেণির যান হিসেবে নির্ধারণ করায় তিন হাজার টাকা দিতে হবে প্রতিবার বঙ্গবন্ধু সেতু পার হতে।

এরপর প্রতি এপেলের জন্য এক হাজার টাকা করে টোল দিতে হবে। পণ্য পরিবহনে সর্বোচ্চ ছয় এপেলের প্রাইম মুভার চলাচল করে। অর্থাৎ এ গাড়িতে টোল দিতে হবে পাঁচ হাজার টাকা। এখন দিতে হয় এক হাজার ৪০০ টাকা। এছাড়া বঙ্গবন্ধু সেতুতে ট্রেন চলাচলের বার্ষিক টোল ৫০ লাখ থেকে এক কোটি টাকা হয়েছে।

যাত্রীবাহী যানবহনে টোল তুলনামূলক কম বেড়েছে। বঙ্গবন্ধু সেতুতে মোটরসাইকেলের টোল ৪০ থেকে বাড়িয়ে ৫০ টাকা, কার ও জিপে ৫০০ থেকে বাড়িয়ে ৫৫০ টাকা করা হয়েছে। মাইক্রোবাস ও পিকাআপে টোল ৫০০ থেকে বাড়িয়ে ৬০০ টাকা করা হয়েছে। ৩২ আসনের কম অর্থাৎ ছোট বাসের টোল ৬৫০ থেকে বাড়িয়ে ৭৫০ টাকা করা হয়েছে। বড় বাসে টোল ৯০০ থেকে এক হাজার টাকা করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে ছোট, মাঝারি ও বড়- এ তিন ক্যাটাগরিতে ট্রাকের টোল নেওয়া হত। সোমবার রাত ১২টার পর থেকে কার্যকর নতুন টোল হারে পণ্যবাহী যানবাহনকে চারটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়েছে। পাঁচ টনের কম অর্থাৎ ছোট ট্রাকে টোল ৮৫০ থেকে বাড়িয়ে এক হাজার টাকা করা হয়েছে। পাঁচ থেকে আট টনের ট্রাকে ৮৫০ টাকার টোল ৪৭ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ২৫০ টাকা হয়েছে। এছাড়া আট থেকে ১১ টনের ট্রাকের টোল ৪৫ শতাংশ বাড়িয়ে এক হাজার ১০০ টাকা থেকে এক হাজার ৬০০ টাকা করা হয়েছে।

এক হাজার ৫২১ মিটার দীর্ঘ মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুর সেতুতে তিন চাকার গাড়ি ও মোটরসাইকেলের টোল ১০ থেকে বাড়িয়ে ১৫ টাকা, অটোরিকশায় ২০ থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা, কার ও মাইক্রোবাসে ৪০ থেকে বাড়িয়ে ৫০ টাকা, ছোট বাসে ১০০ থেকে বাড়িয়ে ১৫০ টাকা, বড় বাসে ২০০ থেকে বাড়িয়ে ২৫০ টাকা টোল নির্ধারণ করা হয়েছে।

২০০৮ সালে নির্মিত মুক্তারপুর সেতুতেও যাত্রীবাহীর তুলনায় পণ্যবাহী গাড়িতে টোল বেশি বেড়েছে। ছোট ট্রাকে ১৫০ টাকার টোল ৫০ বাড়লেও আট থেকে ১১ টনের ট্রাকের টোল তিনগুণ বেড়েছে। ২০০ থেকে ৬০০ টাকা হয়েছে। বড় ট্রাকে ৬০ শতাংশ টোল বেড়েছে। ৫০০ টাকার টোল ৮০০ টাকা হয়েছে।

এ সেতুতেও ট্রেইলার, কাভার্ড ভ্যান, প্রাইম মুভারের মতো বড় পণ্যবাহী গাড়িতে বড় ট্রাকের হিসাবে টোল নেওয়া হত। নতুন হারে চার এপেলের ট্রেইলারে এক হাজার টাকা টোল দিতে হবে। এখন দিতে হয় ৫০০ টাকা। এরপর মুক্তারপুর সেতুতে বাড়তি প্রতি এপেলের জন্য বাড়তি ৫০০ টাকা করে দিতে হবে। ছয় এপেলের গাড়িকে দুই হাজার টাকা টোল দিতে হবে।a

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল আমিন সরকার
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও মাচাবান্দা নামাচর, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ঢাকা অফিসঃ শ্যাডো কমিউনিকেশন, ৮৫, নয়া পল্টন (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা- ১০০০।
ফোনঃ ০৫৮২৪-৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩,
ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com, smnuas1977@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচিত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৯
Design & Developed By ( Nurbakta Ali )