আজকের তারিখ- Thu-02-07-2020

নতুন জীবনে গুলতেকিন

বিনোদন ডেস্ক: বিয়ে করেছেন গুলতেকিন খান। এ সংবাদটি প্রকাশ ইতিমধ্যে অনেকেই জেনে গেছেন। সংবাদটি প্রকাশের পর থেকেই প্রশংসায় ভাসছেন প্রয়াত জনপ্রিয় লেখক হুয়ামুন আহমেদের প্রাক্তন এই স্ত্রী। মেয়ের বান্ধবীকে বিয়ের কারণে ২০০৩ সালে ডিভোর্স হয়ে এই দম্পত্তির। সে থেকে একাই ছিলেন। মাঝে কেটে গেছে ১৬টি বছর। মেয়েদের বিয়ে দিয়ে নাত-নাতনীরও মুখ দেখেছেন তবুও প্রাণের সখা যেন অধরা রয়ে গেছে। যে সখাকে খুঁজতে মাত্র ১৪ বছর বয়সে ভালোবেসে বিয়ে করেন হুমায়ুনকে। ৩০ বছর সংসার করেও যাকে তিনি বুঝতে ব্যর্থ হয়েছিলেন সেই ১৪ বছরের বালিকা বধূ গুলতেকিন ৫৬ বছরে এসে আজ অনেক পরিণত। জীবন চলার পথে তাকে নিতে হয়েছে সমাজের প্রায় বিপরীত স্রোতের চলা ধ্যান-ধারণার বিরুদ্ধে। তবে সেটা যে যুগান্তরী হবে সেটা বোধকরি ভাবেন নি। কারণ এ বয়সে দেহের চেয়ে মনন হৃদয়ের প্রতি আসক্তি থাকে মানবের। তিনি সে পথেই গেছেন। তার এই যাওয়ার পথে পাশে পেয়েছেন তার মেয়েদের এবং একমাত্র ছেলে নুহাশকে। ।অক্টোবরের শেষদিকে বিয়ে হলেও বুধবার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে।

এদিকে মায়ের বিষয়টিকে স্বাভাবিক ভাবেই নিয়েছেন নুহাশ। তিনি তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, “মা শক্ত হাতে আমাদের বড় করেছেন। কখনো কোনো অভাব বুঝতে দেয়নি। মা সবসময়ই আমাদের কাছে আইডল। মা যখন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তখন আমার কোনো দুঃখবোধ ছিল না। বরং আমি অনেক খুশি হয়েছি।”

“আমি মায়ের সঙ্গেই ছিলাম এ ব্যাপারে। তাদের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাচ্ছি। আমি নিজে থেকে মায়ের বিয়ে দিয়েছি। আর এটা লুকানোর কিছু নেই। সামনে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানও হবে। এটা নারীদের জন্য নতুন একটা দ্বার উম্মোচন হলো বলতে পারেন।”

পারিবারিক ছাড়াও দেশের অনেকেই গুলতেকিন-আফতাব দম্পত্তিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

বিশিষ্ট কন্ঠশিল্পী আবিদা সুলতানা এই দম্পত্তিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। একইভাবে অভিনন্দন জানিয়েছেন অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বাস, চিত্রনায়িকা রত্না, কবি তামান্না জেয়াসমিন, কন্ঠশিল্পী পলি সায়ন্তনী প্রমুখ।

সাংবাদিক ও কলামিস্ট আহমেদ তেপান্তর লিখেছেন- “তারা ব্যভিচার করেন নি। কিংবা বাথরুমে গিয়ে সেলফি তুলে সে নিয়ে লোকসমাজে পাল্টা হুমকিও দেন নি। গুলতেকিন বিয়ে করেছেন। বুঝেশুনে বিয়ে করেছেন। হুমায়ূনকে যখন করেছিলেন তখন তিনি বালিকা। এই সময়ে এসেে এটাকে ভুল মনে করছি। গুলতেকিন বিয়ে করেছেন শিরদাড় সোজা করে। সমাজ ব্যবস্থায় এটা বৈপ্লবিক পরিবর্তন। দেহের চাহিদার বাইরেও মনের একটা ক্ষুধা থাকে। সে ক্ষুধা একাকিত্ব কাটানোর একজন পরম বন্ধুর আশ্রয়। তিনি সে আশ্রয়ে গেছেন অথবা মি. আফতাব গুলতেকিনকে ঘিরে সে আশ্রয় খুঁজে পেয়েছেন। সন্তানরা সেটা উপলব্ধি করেছেন। সব মিলিয়ে তাদের সামাজিক বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা ছাপিয়ে বন্ধুত্ব বিষয়টির যথার্থতা ছড়িয়ে পড়ুক। শুভকামনা।”

কাজী রুমা লিখেছেন, দু’জন নিঃসংগ মানুষ তাদের সংগী খুঁজে পেয়েছেন, এরচেয়ে ভালো আর কি হতে পারে?

প্রখ্যাত শায়রী লেখক ইমরান রহমান লিখেছেন, “গুলতেকিন সুখী হোন এটাই কামনা। হুমায়ুন গুলতেকিনকে যা দিয়েছেন সেটা আর কারও পক্ষেই দেয়া সম্ভব হবে না। হুমায়ুনের স্ত্রী হিসেবে তার ওজন ছিল ভিন্ন উচ্চতার। কেউ কারও বিকল্প হয় না।”

প্রয়াত কথাসাহিত্যিক ও চলচ্চিত্রকার হুমায়ূন আহমেদের প্রাক্তন স্ত্রী গুলতেকিন খান। হঠাৎ করে মেহের আফরোজ শাওনকে বিয়ের সিদ্ধান্ত নিলে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় ভালোবেসে সংসার পাতা হুমায়ূন-গুলতেকিন দম্পতির। তারপর থেকেই একেবারে আড়ালে চলে যান গুলতেকিন।
সন্তানদের আকড়ে নিরবে নিভৃতে জীবন কাটিয়েছেন তিনি। ভালোবেসে বাঁধা ঘর ভেঙে যাওয়ার দুঃখ নিয়ে কাটিয়ে দিয়েছেন অনেকগুলো শীত-বসন্ত। নিরবতা কাটিয়ে কয়েক বছর আগে তিনি আলোচনায় আসেন কবিতার বই লিখে। এরপর নিয়ম করে লেখালেখি করছেন তিনি। দীর্ঘদিনের পরিচিত বন্ধু যুব ও ক্রীড়া উপসচিব আফতাব আহমেদের সঙ্গে বুধবার পারিবারিকভাবে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন।
প্রসঙ্গত, গত অক্টোবরের শেষের দিকে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কবি আফতাব আহমেদকে বিয়ে করেন গুলতেকিন। আফতাব আহমেদের সঙ্গে তার ব্যারিস্টার স্ত্রীর বিচ্ছেদ ঘটে ১০ বছর আগে। তাদের একমাত্র সন্তান লন্ডনে লেখাপড়া করছেন। আফতাব আহমদ অভিনেত্রী আয়েশা আখতারের ছেলে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি সাহিত্যের ছাত্র ছিলেন। তিনি গুলতেকিনের দীর্ঘদিনের বন্ধুও।
সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল আমিন সরকার
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও মাচাবান্দা নামাচর, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ঢাকা অফিসঃ শ্যাডো কমিউনিকেশন, ৮৫, নয়া পল্টন (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা- ১০০০।
ফোনঃ ০৫৮২৪-৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩,
ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com, smnuas1977@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচিত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৯
Design & Developed By ( Nurbakta Ali )