আজকের তারিখ- Sat-08-08-2020

কানে ফোড়া হলে কী করবেন

স্বাস্থ্য ডেক্স: কানের ফোড়া একটি বহিঃকর্ণের সাধারণ অসুখ। এ রোগে বহিঃকর্ণের ত্বকে ঘেরা অংশ আক্রান্ত হয়ে থাকে। ফোড়া এক বা একাধিকবার হতে পারে। ডায়াবেটিক রোগীদের এ ধরনের ফোড়া বারবার হয়ে থাকে।

কানে আঘাত, কান খোঁচানো, এলার্জি প্রভৃতি কারণে বহিঃকর্ণের নালির স্বাভাবিক অবস্থান নষ্ট হয়ে গেলে সাধারণত ব্যাকটেরিয়া, ছত্রাক ইত্যাদির সংক্রমণ হয়ে থাকে।

বহিঃকর্ণের সংক্রমণের ফলে যেসব লক্ষণ অনুভূত হয়, সেগুলোর মধ্যে কানে অস্বস্তি অনুভব করা, চুলকানি, তীব্র ব্যথা বিশেষ করে কান নাড়াচাড়া, খাদ্যচর্বণ এবং মুখ খোলার সময় বেড়ে যায়, মুখ খুলতে কষ্ট হয়, কানে শুনতে অসুবিধা হয়, কানের সামনে ও পেছনের লাসিকাগ্রন্থি ফুলে যায় ও ব্যথা হয়, জটিল হলে ফোড়া থেকে পুঁজ কানের সামনে ও মধ্যকর্ণেও ছড়িয়ে পড়া অন্যতম।

এ রোগ প্রতিরোধের জন্য কান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা, গোসলের পর কান শুকনো রাখা, ময়লা কাঠি বা অন্য কিছু দিয়ে কান খোঁচানো যাবে না। নাক-কান-গলা রোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ছাড়া কানে কোনো প্রকার কানের ড্রপ বা ওষুধ ব্যবহার করা যাবে না।

ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র রোগ থাকলে উপযুক্ত চিকিৎসার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। প্রয়োজনে নাক-কান-গলা বিশেষজ্ঞের তত্ত্বাবধানে কানের ময়লা পরিষ্কার করালে উপকার পাওয়া যাবে। এ ধরনের সমস্যায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করুন, ভালো থাকুন।

লেখক: সাবেক বিভাগীয় প্রধান, ইএনটি বিভাগ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও মিটফোর্ড হাসপাতাল

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল আমিন সরকার
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও মাচাবান্দা নামাচর, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ঢাকা অফিসঃ শ্যাডো কমিউনিকেশন, ৮৫, নয়া পল্টন (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা- ১০০০।
ফোনঃ ০৫৮২৪-৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩,
ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com, smnuas1977@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচিত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৯
Design & Developed By ( Nurbakta Ali )