আজকের তারিখ- Tue-29-11-2022

বাংলার মানুষ নিজেদের সমস্যা সমাধান করতে পারে: জয়

যুগের খবর ডেস্ক: কোভিড-১৯ সংকট মোকাবিলা ও নানা সংকট মোকাবিলার উদাহরণ টেনে প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা এবং সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) চেয়ারপার্সন সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, আমার বিশ্বাস ছিল বাংলার মানুষ নিজেদের সমস্যা নিজেরাই সমাধান করতে পারে।
শনিবার (১২ নভেম্বর) বিকেলে সাভারে শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটে আয়োজিত জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডের ষষ্ঠ আসরের পুরস্কার বিতরণী শেষে দেওয়া বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, আমার এই বিশ্বাস ছিল যে, বাংলাদেশের মানুষ, আমরা নিজেদের সমস্যা নিজেরাই সমাধান করতে পারি। সারা বিশ্বেই এখন সংকট চলছে, যুদ্ধ চলছে। আমরা ২ বছর আগেই কোভিড মোকাবিলা করলাম। কোভিড যেতে না যেতেই যুদ্ধ, সন্ত্রাস এসবের জন্য অর্থনৈতিক চাপ বাড়ছে। এসবের খবর শুনে অনেকেই ভয়ে ভয়ে থাকে যে, এ সমস্যা আমাদের দেশ কীভাবে মোকাবিলা করবে! আপনারাই (তরুণরা) সেই সমস্যা সমাধানের উদাহরণ।
তিনি আরও বলেন, আজকে যারা পুরস্কৃত হয়েছে, শুধু তারাই না যারা আমাদের ফাইনালিস্ট এবং এই যে ৬০০টি সংগঠন যারা যোগদান করেছে, আপনারা সকলেই আজকে বিজয়ী। আপনাদের সকলের প্রতি বিশেষ করে যারা ফাইনালিস্ট ও পুরস্কৃত আপনাদের প্রতি আমাদের আন্তরিক কৃতজ্ঞতা। আপনারা দেশের জন্য এবং দেশের মানুষের জন্য যেভাবে সেবা করছেন, এটা আমাদের সকল নাগরিক ও বিশ্বের প্রতি উদাহরণ। আপনাদের মতো তরুণ-তরুণীরা নিজের চিন্তাধারায় এবং প্রচেষ্টায় কারো কাছে হাত না পেতে নিজের মতো করে অল্প বা বেশি যেই পরিসরেই হোক কাজ শুরু করেছেন, এটাই আমাদের চেতনা।
সমস্যার কোনোদিন শেষ থাকে না মন্তব্য করে সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, এই যে ১৪/১৫ বছর যে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায়, আমরা কী কী সমস্যা দেখেছি। প্রথমেই ছিল বিদ্যুতের সমস্যা। তখন সবাই চিন্তা করতো ৮ ঘণ্টার লোডশেডিং এর সমস্যা আমরা কীভাবে সমাধান করবো। তারপর অর্থনীতির, এত মানুষকে কীভাবে খাওয়ানো হবে। অর্থনীতি কীভাবে এগোনো যায়। সেগুলো আমরা করে দেখিয়েছি। তারপর আসলো কোভিড। কোভিড নিয়ে সবাই ভয়ে ছিল, সবার আতঙ্কে ছিল। সারাবিশ্ব আতঙ্কে ছিল। বাংলাদেশ নিজেদের মতো করে নিজেদের প্রচেষ্টায় বিশ্বের অনেক ধনী দেশের চেয়েও ভালোভাবে কোভিড মোকাবিলা করেছে।
ইয়াং বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড প্রদানের সময় গর্ব বোধ করেন জানিয়ে সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, এতগুলো সংগঠন (দেশ গঠনে) এগিয়ে আসে, আবেদন করে। গত ৭ বছর ধরেই আমরা দেখছি। প্রথমে যখন শুরু করি তখন দুইশোর মতো সংগঠন ছিল। প্রত্যেক বছর এর সংখ্যা বাড়ছে। এখন সারাদেশে প্রায় সাড়ে ৩ লাখ সদস্য রয়েছে ইয়াং বাংলার।
উপস্থিত বিজয়ীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আজকে এত আনন্দ লাগছে এটা দেখে যে, আমাদের দেশে আপনারা রোবটিক হাত বানাচ্ছেন। এটা অসাধারণ। আমাদের দেশ থেকে জাতিসংঘে প্রতিনিধি পাঠাচ্ছেন আপনারা ক্লাইমেট চেঞ্জের দাবি করার জন্য। আপনারা সবাই অসাধারণ কাজ করছেন। আপনারা অসাধারণ। বাংলার মানুষ, আমাদের দেশ একটি অসাধারণ দেশ। অল্প জায়গার মধ্যে আমরা ১৬ কোটি মানুষ। আমরা নিজেরা লড়াই করে, রক্ত দিয়ে স্বাধীন করেছি এই দেশ। ১৬ কোটি মানুষকে খাওয়াতে সক্ষম হয়েছি। ১০-১৫ বছরের মধ্যে আমরা এই দেশকে একটি দরিদ্র দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে প্রতিষ্ঠিত করেছি। তরুণ-তরুণীরা, ইয়াং বাংলার অ্যাওয়ার্ডিরা আপনারাই ভবিষ্যৎ। আপনারা তরুণরাই বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ। বাংলাদেশকে আপনারা আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন। আমার আশা ও বিশ্বাস আছে আপনারাই বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে প্রতিষ্ঠিত করবেন।
সারা দেশ থেকে দেশ গঠনে এগিয়ে আসা তরুণদের ৬০০টিরও বেশি সংগঠন থেকে যাচাই বাছাই শেষে শীর্ষ ১০ তরুণ সংগঠনের হাতে ওঠে জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড। এ বছর ৫টি ক্যাটাগরির প্রতিটিতে দুটি করে ১০টি সংগঠনকে এ পুরস্কার দেওয়া হয়। এছাড়াও দেশের জন্য বিশেষ অবদান রাখায় দুজন পেয়েছেন ‘লাইফ টাইম’ বা আজীবন সম্মাননা অ্যাওয়ার্ড। এই অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সিআরআই ট্রাস্টি নসরুল হামিদ বিপু।
সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল আমিন সরকার
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও মাচাবান্দা নামাচর, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ঢাকা অফিসঃ শ্যাডো কমিউনিকেশন, ৮৫, নয়া পল্টন (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা- ১০০০।
ফোনঃ ০৫৮২৪-৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩,
ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com, smnuas1977@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচিত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৯
Design & Developed By ( Nurbakta Ali )
x
পাঠকপ্রিয় সাপ্তাহিক যুগের খবর ও অন-লাইন নিউজ পোর্টাল www.jugerkhabor.com এর দশম বর্ষপূর্তি ও ১১তম বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে সকল পাঠক, গ্রাহক,প্রতিনিধি, বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভানুধ্যায়ীদের জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা। ----- এস, এম নুরুল আমিন সরকার, সম্পাদক ও প্রকাশক।।