আজকের তারিখ- Thu-23-01-2020
 **   বিপাকে ঊর্বশী **   চিলমারীতে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের মাঝে অ্যাসিসটিভ ডিভাইজ বিতরণ **   মুজিববর্ষের প্রথম উপহার ই-পাসপোর্ট: প্রধানমন্ত্রী **   চিলমারীতে উপজেলা পর্যায়ে আন্তঃ প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত **   মাহিনের ‘বর্ডার লাইন’ **   সংবাদমাধ্যম অবাধ স্বাধীনতা ভোগ করছে: তথ্যমন্ত্রী **   শৈত্যপ্রবাহের কবলে কুড়িগ্রাম **   কুড়িগ্রামে আনন্দ টিভির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্বাস উল্লাহ সিকদার স্মরণে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত **   ক্ষুব্ধ ধর্ম প্রতিমন্ত্রী, সভা বর্জন হজযাত্রীদের ভাড়ায় বাণিজ্য **   সংসদে জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী ২০৩১ সালেই শেষ হবে প্রাকৃতিক গ্যাসের মজুত

টিকে থাকতে ১৪৫ দরকার চট্টগ্রামের

স্পোর্টস ডেক্স: পয়েন্ট টেবিলে সেরা হয়ে সরাসরি কোয়ালিফায়ারে খেলার সুযোগ ছিল ঢাকা প্লাটুনের। কিন্তু খুলনার বিপক্ষে ঢাকা সেটা পারেনি। বরং ফিল্ডিং করতে গিয়ে ঢাকার অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজার কেটে যাওয়া বাঁ-হাতে পড়ে ১৪ সেলাই। এলিমিনেটর ম্যাচ তো দূরে থাক জিতলে পরের ম্যাচেও মাশরাফির খেলা শঙ্কায় পড়ে যায়।

সেই মাশরাফি অবাক করে হাতের ১৪ সেলাই নিয়েই সোমবার খেলতে নেমে যান। দলের জন্য মাশরাফির এই নিবেদনই ছিল বড় অনুপ্রেরণা। কিন্তু এলিমিনেটর ম্যাচে চট্টগ্রামের বিপক্ষে শুরুটা খুবই খারাপ করে ঢাকা। শেষ পর্যন্ত দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে ওঠার ম্যাচে শাদাব খানের এক ঝড়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রানের সংগ্রহ তুলেছে তারা।

শুরুর ৩০ রানের আগেই ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে ঢাকা। সেই চাপ থেকে মেহেদি হাসান-জাকির আলীরা দলকে উদ্ধার করতে পারেনি। বরং পঞ্চাশ রানের পরই ৬ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় মাশরাফির দল। ঢাকাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেও ৩১ বলে ৩১ রান করে সাজঘরে ফেরেন গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে অসাধারণ ইনিংস খেলা মুমিনুল হক।

পরে পাকিস্তানের লেগ স্পিনার শাদাব খান এবং লংকান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা দলকে বাঁচান। তাদের ব্যাটে কিছু রান পায় ঢাকা। শাদাব খান করেন ৪১ বলে তিন ছক্কা ও পাঁচ চারে ৬৪ রান। আর পেরেরা ১৩ বলে ২৫ রান করে আউট হন।

চট্টগ্রামের হয়ে রায়াদ এমরিট দারুণ বোলিং করেন। তিনি ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ২৩ রানে দেন ৩ উইকেট। রুবেল হোসেন শুরুতে আগুন ঝরানো বোলিং করেন। শেষ পর্যন্ত ৩৩ রান দিয়ে ২ উইকেট তুলে নেন। দারুণ বোলিং করে আলোয় আসা বাঁ-হাতি অফ স্পিনার নাসুম আহমেদ ২ ওভারে ১১ রানে নেন ২ উইকেট। এছাড়া মাহমুদুল্লাহ ২ ওভারে মাত্র ৫ রান দিয়ে একটি উইকেট তুলে নেন। তবে শেষ দিকে মেহেদি রানা এবং জিয়াউর রহমান বেশ রান দিয়ে ফেলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচিত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৯
Design & Developed By ( Nurbakta Ali )