আজকের তারিখ- Sun-11-04-2021

সাংবাদিকতার ‘নৈতিকতা বিরোধী’ অনুষ্ঠান প্রচার করছে আল জাজিরা

যুগের খবর ডেস্ক: কাতার ভিত্তিক আল জাজিরা টেলিভিশনের নতুন চালু করা রক্ষণশীল ‘রাইটইউং ডিজিটাল প্লাটফর্ম’কে সাংবাদিকতার নৈতিকতা বিরোধী বলছেন খোদ টেলিভশনটির কর্মীরা। নতুন এই অনুষ্ঠান যেভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে, তা নিরপেক্ষ নয়, উদ্দেশ্য প্রণোদিত। এভাবে অনুষ্ঠান পরিবেশন করলে আল জাজিরার জন্য অপূরণীয় ক্ষতি হবে এবং সাংবাদিকতার নৈতিকতার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করা হবে। একটি গোষ্ঠি বা দলকে প্রাধান্য দিয়ে অনুষ্ঠান পরিচালনা করার অভিযোগ উঠেছে।
আল জাজিরার ১০০ জন কর্মী স্বাক্ষরিত একটি গোপনীয় চিঠিতে এসব অভিযোগ উত্থাপন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দ্যা গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে তা তুলে ধরা হয়েছে। চিঠিতে একটি দেশের একটি রাজনৈতিক দল বা গোষ্ঠির স্বার্থে নিউজ করার ক্ষেত্রে কি কি ধরনের সমস্যা হতে পারেও তাও তুলে ধরা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার আল জাজিরা রাইট নাউ নামে নতুন একটি অনুষ্ঠান চালু করা হয়েছে।
সম্প্রতি আল জাজিরার সাংবাদিকতার নৈতিকতা বিরোধী সংবাদ ও অনুষ্ঠান নিয়ে নানা ধরনের সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। গত ১ ফেব্রুয়ারি আল জাজিরা ‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেন’ শিরোনামে একটি ভুয়া প্রতিবেদন প্রচার করে। এটি বাংলাদেশের সাংবাদিক, বুদ্ধিজীবী ও সুশিল সমাজসহ সকল মহল মনে করে বাংলাদেশ বিরোধী একটি ষড়যন্ত্রের অংশ। তখন তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এটিকে মিথ্যা, সম্মানহানিকর এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত প্রচারণা বলে অভিহিত করেছে। এতে আরও বলা হয়েছে, চরমপন্থি গোষ্ঠী ও তাদের সঙ্গে সম্পর্কিত কুখ্যাত ব্যক্তিরা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত যে অপপ্রচার চালিয়ে আসছে, এটি তারই  অংশ ছাড়া আর কিছুই নয়। মন্ত্রণালয়ের প্রতিক্রিয়ায় দুটি বিষয় সুনির্দিষ্ট করে বলা হয়েছে। একটি হচ্ছে— ‘প্রধানমন্ত্রী এবং বাংলাদেশের অন্যান্য সংস্থাগুলো’ এর সঙ্গে জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ নেই। দ্বিতীয়টি হচ্ছে— প্রতিবেদনের ঐতিহাসিক বিবরণে ‘একাত্তরের ভয়াবহ গণহত্যার কথা উল্লেখ করতে ব্যর্থ হয়েছে।
আল জাজিরা সম্প্রতি তথাকথিত অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের নামে সাংবাদিকতার নৈতিকতা বিরোধী প্রতিবেদন প্রকাশ করে যাচ্ছে। যা এখন বিশ্বে সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। একইসঙ্গে আল জাজিরার গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। অনেকে আল জাজিরার এসব প্রতিবেদনের পেছনে আর্থিক সংশ্লিষ্টতারও অভিযোগ তুলেছেন।
দ্যা গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে আল জাজিরার ১০০ কর্মী চিঠি দিয়ে আগামী দিনে তাদের চাকরির নিশ্চয়তা নিয়ে আশঙ্কার কথা বলা হয়েছে। কারণ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যারা কাজ করেন, তাদের জন্য কাজ করা কঠিন হয়ে যাবে এবং একসময় আল জাজিরা ছেড়ে দিতে বাধ্য হবে।
বিশেষ করে যারা আমেরিকায় আল জাজিরার হয়ে কাজ করেন, সেসব সংবাদকর্মী অনেক বেশি চ্যালেঞ্জের মুখে পরতে যাচ্ছেন। কারণ আল জাজিরা নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে আমেরিকায়। একটি আর্দশ বা রাজনৈতিক দলের স্বার্থে আল জাজিরা কাজ করার অভিযোগ করছেন খোদ টেলিভিশনটির কর্মীরা। তারা নতুন অনুষ্ঠানের কার্যক্রমে হতাশ হয়ে পরেছেন এবং তাদেরকে সমালোচনার মুখে পরতে হয়েছে। অনেক দক্ষ নারী কর্মীকে অতিরিক্ত বেতন ছাড়াই অতিরিক্ত কাজ করানোর অভিযোগও করা হয়েছে।
চিঠির স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন নির্বাহী প্রযোজক, উপস্থাপক এবং সংবাদদাতা অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন এবং প্রায় ২০ জন তাদের চাকরির জন্য উদ্বেগ প্রকাশ না করেই স্বাক্ষর করেছেন বলে মিডিয়া সংস্থার সূত্র জানিয়েছে। ওয়াশিংটনের এক কর্মী জানিয়েছেন, আরও স্বাক্ষর সহ চিঠিটির একটি আপডেট সংস্করণ পরে পাঠানো হবে।
গত বৃহস্পতিবার আল জাজিরা রাইট নাউ নামে ‘মতামত: নেতাদের সাক্ষাৎকার’ অনুষ্ঠানে আমেরিকার রাজনীতি নিয়ে যেভাবে বলা হয়েছে, তা একপেশে এবং উদেশ্য প্রণোদিত বলে অভিযোগ উঠেছে। এভাবে একটি দল বা আদর্শকে সমর্থন এবং আরেকটি দল বা আদর্শকে হেয় করা বা মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করা একেবারেই সাংবাদিকতা বিরোধী।
গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রয়্যাল ইউনাইটেড সার্ভিসেস ইনস্টিটিউট এবং কার্নেজি এন্ডোমেন্টের সিনিয়র ফেলো ডাঃ এইচএ হেলিয়ার বলেছেন, আল জাজিরার আরবি সংস্করণের সাথে যারা পরিচিত তাদের রাইট নাউ সংস্করণটি আশ্চর্যজনক মনে হতে পারে।
অনেকেই বলছেন, আল জাজিরা এক সময় অনেক ভালো ভালো সত্য এবং অনুসন্ধানী অনুষ্ঠান প্রচার করতো। এখন প্রতিষ্ঠানটি কেনো এ ধরনের অনুষ্ঠান প্রচার করছে তা নিয়ে সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।
সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল আমিন সরকার
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও মাচাবান্দা নামাচর, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ঢাকা অফিসঃ শ্যাডো কমিউনিকেশন, ৮৫, নয়া পল্টন (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা- ১০০০।
ফোনঃ ০৫৮২৪-৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩,
ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com, smnuas1977@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচিত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৯
Design & Developed By ( Nurbakta Ali )