আজকের তারিখ- Sun-24-10-2021

গণমাধ্যমে খবর প্রকাশের পর পূজারী ভানু রাম দাস পেল খাবারযোগ্য ত্রাণ

স্টাফ রিপোর্টার: ১১ ও ১২ অক্টোবর “চিলমারীতে পঁচা আলু ইউএনও অফিসে ফেরত দিলেন সুবিধাভোগী” এবং বিভিন্ন শিরোনামে সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশিত হবার পর কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলা প্রশাসনের দৃষ্টিতে সংবাদটি আসে। অবশেষে প্রশাসন ১২ অক্টোবর বিকেলে পূজারি ভানু রাম দাসসহ ৩৮জন হতদরিদ্র হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মাঝে পরিষ্কার খাবারযোগ্য ত্রাণ বিতরণ করেছে।
প্রকাশ, গত সোমবার চিলমারীতে দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে দরিদ্র হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করে উপজেলা প্রশাসন। পচা আলু, চালসহ নিম্নমানের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করায় ত্রাণ গ্রহীতারা চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে। উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের কালির পাট মন্দিরের পূজারি ভানু রাম দাস ক্ষোভে তাকে দেয়া পঁচা আলু ইউএনও অফিসে ফেরত দিয়ে বাড়ি চলে যায়।
এদিকে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শওকত আলী সরকার বীরবিক্রম নিম্নমানের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ না করে, ত্রাণের মান যাচাই পূর্বক খাবার উপযুক্ত ত্রাণ বিতরণ করার নির্দেশ দেন। এরপর ত্রাণ বিতরণ বন্ধ রাখা হয়।
এরপর এ বিষয়টি তুলে ধরে সংবাদ প্রকাশিত হবার পর ঐদিন বিকেলেই উপজেলা প্রশাসন আলু, চাউল, তেল, ডাল, লবণ, চিনি বদলিয়ে নতুন করে প্যাকেজ ত্রাণ তৈরি করে ভানু রাম দাসসহ পূর্বে দেয়া হয়নি এরকম ৩৮ জন পূজারির মাঝে নতুন প্যাকেজ ত্রাণ বিতরণ করেন। ভানু রাম দাস (৭০) ও বিজো বালা (৬৫) কে নতুন ত্রাণ দেবার পূর্বে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাদের বয়স বিবেচনা করে রিক্সায় যাতে ত্রাণ নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারে সে জন্য ব্যক্তিগত ভাবে কিছু টাকা হাতে তুলে দেন। পরিষ্কার ও খাবারযোগ্য ত্রাণ পেয়ে ভানু রাম দাস, বোজ বালা, মণীন্দ্র নাথ দাস, নিদানীসহ সকলে খুব খুশি হয়ে হাসিমাখা মুখে বাড়ি ফিরেছে। উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি ডাঃ সলিল কুমার বর্ম্মণ এ প্রতিনিধিকে বলেছেন, প্রশাসন ত্রাণ পালটিয়ে দেয়ায় আমরা হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা আনন্দিত ও সম্মানিত বোধ করছি। এ জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহবুবুর রহমান কেন এ রকম হলো? তার স্বপক্ষে বলেন, ৩৩৩ নম্বরের বরাদ্দের ৩৪টি প্যাকেট ৫/৭ দিন পূর্বে বস্তায় ভরিয়ে প্যাকজ করে রাখা হয়েছিল। যারা এই ত্রাণ বিতরণের দায়িত্বে ছিল, তারা ভুলে সেই ত্রাণের বস্তা গুলিকে নতুন বস্তার সাথে মিশিয়ে ফেলেছিল। সংবাদপত্রসহ বিভিন্ন মাধ্যমে আমাদের দৃষ্টিতে আসায়, আমরা দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পেরেছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল আমিন সরকার
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও মাচাবান্দা নামাচর, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ঢাকা অফিসঃ শ্যাডো কমিউনিকেশন, ৮৫, নয়া পল্টন (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা- ১০০০।
ফোনঃ ০৫৮২৪-৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩,
ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com, smnuas1977@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচিত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৯
Design & Developed By ( Nurbakta Ali )