**   একজন সর্বোচ্চ তিনটি আসন থেকে নির্বাচনের বিধানের সংশোধনী আনতে সুপারিশ **   উলিপুরে শিলাবৃষ্টিতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি **   কুড়িগ্রামে রাস্তা সংস্কার ও ধরলা নদীর ভাঙন থেকে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন-সমাবেশ **   উলিপুরে ভ্রাম্যামান আদালত অবৈধ ইটভাটার ৩০ হাজার টাকা জরিমানা **   ৯০জন শিল্পীর টানা ৯ ঘন্টার পরিবেশনা: কুড়িগ্রাম ভাওয়াইয়া উৎসব অনুষ্ঠিত **   শিশুমৃত্যু শূন্যে নামানোর অঙ্গীকার স্বাস্থ্যমন্ত্রীর **   বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ ১৬ জুন **   ‘শিগগিরই বাংলাদেশের অর্থনীতি ভারত-তুরস্কের মতো হবে’ **   তারেককে নিয়ে কাদার মধ্যে পড়ে যাচ্ছে বিএনপি: শাহরিয়ার **   তিস্তা নিয়ে মমতার সঙ্গে বসবেন কাদের

‘প্রধানমন্ত্রী ক্ষমা না চাইলে আইনি ব্যবস্থা’

1512723673
যুগের খবর ডেস্ক: বিদেশে খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের সম্পদ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য প্রত্যাহার করা না হলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে বিএনপি। এক সংবাদ সম্মেলনে আজ শুক্রবার ঢাকায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তার দলের এই সিদ্ধান্তের কথা জানান।
তিনি জানান, “প্রধানমন্ত্রী গতকাল সংবাদ সম্মেলনে সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে কল্পিত পাচারকৃত সম্পদের বর্ণনা এবং কল্পিত সংবাদ মাধ্যমে তা প্রকাশের কল্পিত কাহিনী প্রকাশ করেছেন যা সর্বৈব মিথ্যা, বানোয়াট, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত ও ভিত্তিহীন।”
দেশের ‘সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রীর’ ভাবমূর্তি বিনষ্ট করা এবং তাকে রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করেই এর উদ্দেশ্য বলে অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব।
তিনি জানান, “অলীক মিথ্যা তথ্য প্রচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা থেকে বিরত থাকুন।… এই মানহানিকর তথ্য প্রচারের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করুন। অন্যথায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে আমরা বাধ্য হব।”
সম্প্রতি দেশের কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমে বিদেশি একটি প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে একটি খবর প্রকাশিত হয়। সেখানে বলা হয়, বাংলাদেশে দুর্নীতি মামলায় বিচারের মুখে থাকা সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের সদস্যদের বিপুল পরিমাণ সম্পদ রয়েছে সৌদি আরবে।
বৃহস্পতিবার গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এক সাংবাদিকের প্রশ্নে ওই প্রসঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
ওই খবর কেন শুধু দুটি সংবাদপত্র ও দুটি টেলিভিশনে প্রকাশ করা হল, কেন অন্য সংবাদমাধ্যমগুলো তা প্রকাশ ও প্রচার করল না- সেই প্রশ্ন তুলে উষ্মা প্রকাশ করেন তিনি।
প্রধানমন্ত্রী অনেকটা ক্ষুব্ধ কণ্ঠে বলেন, “সৌদি আরবে যে বিশাল শপিং মল পাওয়া গেল; এটা তো আমরা বলিনি। এই খবর দেওয়ার কোনো আগ্রহ দেখলাম না।
সম্পাদকরা বিনা পয়সায় শপিং করার কার্ড পেয়েছেন কি না, সেই কারণে খবরটি চেপে গেছেন কি না- এমন প্রশ্নও তিনি সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকদের সামনে তোলেন।
প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী সম্পাদিত দ্য ডেইলি অবজারভারে এই খবরটি প্রকাশিত হয়েছিল গত ১ ডিসেম্বর। প্রতিবেদনে সংবাদের উৎস বলা হয়েছিল, আরবভিত্তিক টিভি চ্যানেলগুলোকে উদ্ধৃত করে ‘গ্লোবাল ইন্টেলিজেন্স নেটওয়ার্ক (জিআইএন)’ এবং ‘কানাডার টিভি চ্যানেল দ্য ন্যাশনাল’ এই খবর দিয়েছে।
ইন্টারনেট ঘেঁটে ‘দ্য নাশনাল’ নামে কানাডার কোনো টিভি চ্যানেলের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। কানাডার রাষ্ট্রীয় টিভি চ্যানেলে দ্য নাশনাল নামে একটি নিউজ প্রোগ্রামের অস্তিত্ব পাওয়া যায়, তবে সেখানে সার্চ দিয়ে খালেদা সংক্রান্ত কোনো খবর পাওয়া যায়নি। আর গ্লোবাল ইন্টেলিজেন্স নেটওয়ার্ক নামে কোনো গণমাধ্যম ইন্টারনেটে খুঁজে পাওয়া যায়নি।
‘বাংলা ইনসাইডার’ নামে একটি পোর্টালেও ‘খালেদার সম্পদের’ খবরটি ছাপা হয়েছে; সেখানে কোনো সূত্রের উদ্ধৃতি নেই। এই সংবাদপত্রটি ইতোপূর্বে ভুয়া খবর প্রকাশের জন্য আলোচনায় আসে।
প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাতে শুক্রবার সকালে বিএনপির ডাকা ‘জরুরি সংবাদ সম্মেলনে’ ফখরুল জানান, “প্রধানমন্ত্রীর এই ধরনের মিথ্যা ভিত্তিহীন ও বানোয়াট বক্তব্য শুধু অশালীন নয় এটা বেআইনি ও শাস্তিযোগ্য। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া বা তার পরিবারের কারো বিরুদ্ধে বিদেশে সম্পদ পাচার অথবা বিনিয়োগ কোনো অভিযোগ আজ পর্যন্ত প্রমাণিত হয়নি।”
আইনানুগ কী ব্যবস্থার কথা বিএনপি ভাবছে জানতে চাইলে মহাসচিব জানান, “আইনানুগ ব্যবস্থা বলতে যা বোঝায় তাই বুঝিয়েছি। আমরা বলেছি যে ক্ষমা প্রার্থনা করতে এবং বক্তব্য প্রত্যাহার করতে হবে। তা যদি না করেন তাহলে আইনের যে বিধান আছে, সে বিধান অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করব।”
সেই ব্যবস্থা প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কিনা- এমন প্রশ্নে ফখরুল জানান, ‘‘ আমাদের বক্তব্য তো প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের বিরুদ্ধে।… নামও বলেছি। … আমার বক্তব্যের শুরুতেই বলেছি।”
অন্যদের মধ্যে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব মাহবুবউদ্দিন খোকন, সাংগঠিনক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪