দিল্লির বিরুদ্ধে জোরালো অভিযোগ ট্রাম্পের

যুগের খবর ডেস্ক: আবারও ভারতের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দেশ দুটির মধ্যে গত দুু’দিনে (২৬-২৭ জুন) উচ্চপর্যায়ের বৈঠক হওয়ার কথা। এর আগেই মার্কিন পণ্যের ওপর ভারত মাত্রাতিরিক্ত শুল্ক চাপাচ্ছে বলে অভিযোগ করলেন ট্রাম্প। তার দাবি, ভারতের মতো বেশ কয়েকটি দেশ মার্কিন পণ্যের উপর ১০০ শতাংশ শুল্ক চাপাচ্ছে। যা কোনভাবেই চলতে দেয়া যাবে না বলে হুঁশিয়ারি জানিয়েছেন তিনি।

ট্রাম্পের শুল্কারোপের সিদ্ধান্তে ফুঁসছে সারা বিশ্ব। পাল্টা করের হাত থেকে যে ওয়াশিংটনও রেহাই পাবে না, সে হুমকি আগেই দিয়েছে চীন, কানাডা, ইইউ, মেক্সিকো এবং ভারত। মূলত এ বাণিজ্য সংঘাতের জেরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে ধারাবাহিকভাবে সম্পর্কের অবনতি ঘটে চলেছে যুক্তরাষ্ট্রের । এতদিনের মিত্র ইউরোপ ক্ষুব্ধ। এমনকি দীর্ঘদিনের বন্ধু কানাডার সঙ্গেও সম্পর্ক বিষিয়ে যেতে বসেছে ওয়াশিংটনের। এর পাশাপাশি আরও অবনতি হয়েছে চীন-মার্কিন সম্পর্কেরও। এদিকে কিছু দিন আগে ভারত থেকে আমদানি করা ইস্পাত ও অ্যালুমিনিয়ামের ওপর শুল্ক আরোপ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এর ‘পাল্টা জবাব’ হিসেবে সম্প্রতি ২৯টি মার্কিন পণ্যের ওপর আমদানি শুল্ক বসানোর কথা ঘোষণা করেছে দিল্লিও। যার মধ্যে রয়েছে চিংড়ি, আপেল, গাড়ি। তবে কমপক্ষে একটি মার্কিন পণ্যে শুল্ক বসানোয় ছাড় দিয়েছে ভারত। ডব্লিউটিও’কে দেয়া ৩০টি পণ্যের তালিকায় বাইক থাকলেও, বিজ্ঞপ্তি থেকে সেটিকে বাদ দেয়া হয়েছে। ভারতীয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আগামী ৪ আগস্ট থেকে বর্ধিত শুল্ক কার্যকর হবে।

তবে এরই মধ্যে দু’দেশের বাণিজ্য সম্পর্ক তেতো হয়ে যাওয়া ঠেকাতে ভারতে আসছেন মার্কিন প্রতিনিধিরা। এ সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে গত ২৬ জুন থেকে দু’দিনের বৈঠকে বসার কথা মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের। কিন্তু তার আগেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ভারতের বিরুদ্ধে যেভাবে আক্রমণ করে বসলেন, তাতে রীতিমতো বিস্মিত দিল্লি। অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার প্রশাসন ‘আমেরিকা ফার্স্ট নীতি’কে প্রাধান্য দিতে গিয়ে বহুদিনের মিত্র ইউরোপ ও কানাডা এবং দক্ষিণ এশিয়ার কয়েকটি দেশের সঙ্গে বাণিজ্য সংঘাতে জড়িয়ে পড়েছে। সম্প্রতি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, ভারতের মতো বেশ কয়েকটি দেশ মার্কিন পণ্যের ওপর ১০০ শতাংশ শুল্ক চাপিয়েছে। তার দাবি, ওই শুল্ক প্রত্যাহার করতে হবে। তিনি আরও বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ব্যাঙ্ক হিসেবে ভেবে ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালাচ্ছে বেশ কয়েকটি দেশ। চীনের সঙ্গে বাণিজ্যে ইতোমধ্যেই ৫০ হাজার কোটি ডলার ক্ষতি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের । একইসঙ্গে ক্ষতি হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে বাণিজ্যেও। কিন্তু এ ঘটনা চলতেই থাকবে, তা হতে পারে না।’ তবে অনেক বিশ্লেষকের অভিমত, বাণিজ্য সংঘাতে নেমে যেভাবে একের পর এক বন্ধু হারাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, এটাই পরবর্তীতে তাদের বিপদের কারণ হয়ে দেখা দিতে পারে।

তবে মার্কিন শুল্কারোপের প্রতিবাদে আগেই বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) দ্বারস্থ হয়েছিল মোদি সরকার। শুরুতে দিল্লি একাধিক বার মার্কিন শুল্ক ভারতের রফতানিতে তেমন প্রভাব ফেলবে না বলে নিশ্চিত করে। কারণ, দেশটি থেকে যে পরিমাণ ইস্পাত ও অ্যালুমিনিয়াম যুক্তরাষ্ট্রে যায়, তা মোট রফতানির তুলনায় সামান্য। কিন্তু পরবর্তী সময়ে সেই অবস্থান থেকে সরে দাঁড়ায় দিল্লি। দেশটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের মুখে শোনা যায় উদ্বেগের কথা। এরই মধ্যে শুল্ক ও পাল্টা শুল্কের হুঙ্কারে চীন, কানাডা এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের এখন কার্যত বাণিজ্য যুদ্ধ শুরু হয়েছে। ফলশ্রুতিতে সংকটের ছায়া নেমে এসেছে বিশ্বজুড়ে। মার্কিন শুল্কারোপের জবাবে চীন ও ইইউ পাল্টা আঘাত নেয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে। যা দেখে চীনা পণ্যে পাল্টা আরও এক ধাপ শুল্ক চাপানোর হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। অনেকের মতে, বাণিজ্য যুদ্ধ বর্তমানে যে দিকে মোড় নিয়েছে , তাতে সরাসরি না হলেও পরোক্ষভাবে ভারতের রফতানির উপর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। এ বিষয়ে শঙ্কিত দিল্লি। আর তাই পাল্টা আঘাত করতে বাধ্য হয়েছে তারা।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪