**   কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাট জেলা পুলিশের উদ্যোগে আঞ্চলিক মহাসড়কে দুর্ঘটনা রোধকল্পে মতবিনিময় **   শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে আফগানদের হারালো বাংলাদেশ **   সরকারি হাইস্কুলে পদোন্নতি: সিনিয়র শিক্ষক হচ্ছেন ৫৫০০ জন **   উলিপুরে বিজয়ের উল্লাসে বিজয় মঞ্চের কাজ শুরু **   কুড়িগ্রামে ‘অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ’ শীর্ষক উন্নয়ন কনসার্ট অনুষ্ঠিত **   উলিপুরে বিদ্যূৎস্পৃষ্টে অটোচালক নিহত **   আওয়ামী লীগকে ছাড়া জাতীয় ঐক্য হতে পারে না: কাদের **   ১০ জেলায় নতুন ডিসি **   দেবী রূপে অপু বিশ্বাস **   জাতিসংঘে রোহিঙ্গা নিয়ে বিশ্বের সমর্থন চাইবেন প্রধানমন্ত্রী  বৈঠক হতে পারে ট্রাম্পের সঙ্গে

ক্রোয়েশিয়ার ইতিহাস ইংল্যান্ডকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো ফাইনালে

Untitled-19-5b4675e9c4e2b

যুগের খবর ডেস্ক: জল্গাতকো দালিচের চোখে কান্না দেখা গেল না। রাশিয়ার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনাল জয়ের পর আনন্দে কেঁদেছিলেন ক্রোয়েশিয়ার একান্ন বছর বয়সী কোচ। বুধবার রাতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনাল তার চোখে জল আনার আরেকটি উপলক্ষ হয়েই ছিল। হয় আনন্দ-অশ্রু, অথবা বিষাদের কান্না। অথচ ম্যাচশেষে দালিচ কাঁদলেন না একদমই। যে হাসিটা দিলেন, সেটাতেও যেন একটা অবিশ্বাসের ছাপ। অনন্য অর্জন আর সেই অর্জনের অভাবনীয় আনন্দ যেন ক্ষণিকের জন্য দালিচকে অনুভূতির দোলাচলে রাখল। তবে সেটা ওই কয়েক মুহূর্তই। এরপরই খেলোয়াড়দের সঙ্গে মেতে উঠলেন বাঁধভাঙা উল্লাসে। জয়ের উল্লাসে। ইতিহাস গড়ার উল্লাসে। কয়েক প্রজন্মের অপেক্ষার পর অবশেষে বিশ্বকাপের ফাইনালে গেছে ক্রোয়েশিয়া।
পিছিয়ে থেকেও ইভান পেরিসিচ আর মারিও মান্দজুকিচের গোলে ইংল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ক্রোয়েশিয়া। আগামী রোববার লুঝনিকি স্টেডিয়ামের ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ ফ্রান্স।
ম্যাচের পঞ্চম মিনিটেই ফ্রি-কিক থেকে দুর্দান্ত এক গোল করে ইংল্যান্ডকে এগিয়ে দেন কিরেন ট্রিপিয়ার। ডি-বক্সের একদম সামনে দেলে আলি ফাউলের শিকার হলে ফ্রি-কিক পায় ইংলিশরা। ২০ গজ দূর থেকে ট্রিপিয়ারের নেওয়া শটটা ঠেকাতে লাফিয়ে উঠিয়েছিল ক্রোয়েশিয়ার মানবদেয়াল। কিন্তু সেই দেয়ালের ওপর দিয়ে বেরিয়ে কিছুটা বাঁক খেয়ে জালে জড়ায় বল। গোলরক্ষক ড্যানিয়েল সুবাসিচের করার ছিল খুব সামান্যই।
জাতীয় দলের জার্সি গায়ে এটিই ট্রিপিয়ারের প্রথম গোল। এই গোলের বদৌলতে ইংল্যান্ডের প্রথম ডিফেন্ডার হিসেবে বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে গোল করার কীর্তি গড়েন ২৭ বছর বয়সী এই ফুটবলার। ২০০৬ সালে ডেভিড বেকহামের পর দ্বিতীয় ইংলিশ ফুটবলার হিসেবে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে ফ্রি-কিক থেকে পান গোলের দেখা।
এগিয়ে যাওয়ার পর ক্রোয়েশিয়ার রক্ষণে আরও বেশি চাপ তৈরি করে ইংল্যান্ড। ১৫তম মিনিটে ক্রোয়াটদের গোলমুখে হ্যারি মাগুইয়ারের কাছে ক্রস দিয়েছিলেন ট্রিপিয়ার। মাগুইয়ারের হেড গোলবারের বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যায়। ২২তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার দারুণ সুযোগ এসেছিল ইংলিশদের সামনে। ক্রোয়েশিয়ার গোলরক্ষক সুবাসিচ বল ঠেলে দিয়েছিলেন ডিফেন্ডার ইভান স্ত্রিনিচের দিকে। কিন্তু স্ত্রিনিচের ভুলে বল পেয়ে যান রহিম স্টারলিং, বাড়িয়ে দেন হ্যারি কেনের দিকে। কেন অফসাইডে থাকায় সেবারের মতো রক্ষা হয় ক্রোয়েশিয়ার।
৩০তম মিনিটে কেনের ভুলে গোল হাতছাড়া করে ইংল্যান্ড। জেসে লিনগার্ডের কাছ থেকে পাওয়া বল ধরে সামনে এগোনো কেনের পথে বাধা ছিলেন কেবল সুবাসিচ। ফাঁকায় বল পেয়েও দুর্বল শট নেন কেন, যেটা সহজেই রুখে দেন ক্রোয়েশিয়ার গোলরক্ষক। ফিরতি বলের দখল অবশ্য নিয়েছিলেন কেন, ততক্ষণে উঠে গেছে অফসাইডের পতাকা। পাঁচ মিনিট পর আবারও গোলের সুযোগ তৈরি করেছিল থ্রি লায়ন্সরা। ডি-বক্সের একপ্রান্তে দেলে আলির বাড়ানো বল পেয়েছিলেন লিনগার্ড। ডান দিকে নেওয়া তার নিচু শট পোস্টের বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যায়।
৪৩তম মিনিটে ক্রোয়েশিয়ার একটি আক্রমণ নষ্ট হয় শিমে ভারসালকোর কারণে। ৩৫ গজ দূর থেকে নেওয়া তার শট বেরিয়ে যায় ইংল্যান্ডের গোলপোস্টের অনেকখানি ওপর দিয়ে। যোগ করা সময়ে একটি ফ্রি-কিক পেয়েছিল ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু ইংলিশ ডিফেন্ডারদের দৃঢ়তায় প্রথমার্ধে গোলবঞ্চিতই থেকে যায় তারা।
দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরুর মিনিট চারেক পর ইংলিশ ডিফেন্ডার কাইল ওয়াকারকে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন ক্রোয়েশিয়ার ফরোয়ার্ড মারিও মান্দজুকিচ। ৫৪তম মিনিটে প্রতিপক্ষের থ্রোতে বাধা দিয়ে হলুদ কার্ড দেখেন ওয়াকারও।
দুই মিনিট পর ২০ গজ দূর থেকে নেওয়া লিনগার্ডের শট দোমাগোই ভিদার পায়ে লেগে দিক পরিবর্তন করে বাইরে বেরিয়ে যায়। কর্নার কিক থেকে উড়ে আসা বল বিপদমুক্ত করতে গিয়ে ডানদিকে ট্রিপিয়ারের দিকে ঠেলে দেন ইভান পেরিসিচ। গোলমুখে ক্রস করেছিলেন ট্রিপিয়ার, হেড করতে লাফিয়েও ছিলেন কেন। কিন্তু মাথা ছোঁয়াতে পারেননি। ৬৪তম মিনিটে ডান দিকে উঠে আসা মদ্রিচের ক্রস থেকে বল পেয়ে জোরালো শট নিয়েছিলেন পেরিসিচ। সেই শট ঠেকিয়ে দেন ওয়াকার।
আক্রমণ-প্রতি আক্রমণের মধ্যেই ৬৮তম মিনিটে খেলায় সমতায় ফেরে ক্রোয়েশিয়া। ডান দিক থেকে বল নিয়ে উঠে এসে বেশ অনেকটা দূর থেকে গোলমুখে ক্রস বাড়িয়েছিলেন ভারসালকো। ইংলিশ ডিফেন্ডারদের জটলায় পেছন থেকে দৌড়ে এসে পা অনেকটা উঁচুতে উঠিয়ে বলকে জালে ঠেলে দেন পেরিসিচ।
দুই মিনিট পর দলকে এগিয়ে দেওয়ার সুযোগও এসেছিল পেরিসিচের সামনে। এবার পারেননি তিনি। ইংলিশ ডিফেন্ডার জন স্টোনস গোলমুখ থেকে বল বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ হলে সহজ সুযোগ পেয়ে যান পেরিসিচ। তার বাম পায়ের শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়।
এরপর আরও বেশ কয়েকবার সুযোগ নিতে চেয়েছিল দুই দলই। ৭৯তম মিনিটে জর্ডান হেন্ডারসনের করা ভলি ক্রোয়েশিয়ার গোলবারের ওপর দিয়ে বেরিয়ে যায়। তিন মিনিট পর মান্দজুকিচের জোরালো শট ঠেকিয়ে দেন ইংলিশ গোলরক্ষক জর্ডান পিকফোর্ড। নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে ত্রিশ গজ দূর থেকে একটি উচ্চাকাঙ্ক্ষী শট নেন ক্রোয়াট ডিফেন্ডার দেয়ান লোভরেন, কাজে লাগেনি সেটাও। খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।
৯৭তম মিনিটে ইংল্যান্ডের বদলি খেলোয়াড় ড্যানি রোজকে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন ক্রোয়েশিয়ার আন্তে রেবিচ। দুই মিনিট পর ট্রিপিয়ারের ক্রস হেড করে বিপদমুক্ত করেন ভারসালকো। অতিরিক্ত সময়ের প্রথমার্ধের খেলাও যখন যোগ করা সময়ে ঢুকে গেছে, তখন গোলের সহজ সুযোগ মিস করেন মান্দজুকিচ। পেরিসিচের পাস থেকে পাওয়া বলটাকে জালে জড়াতে তার সামনে বাধা ছিলেন কেবল পিকফোর্ড। সেই বাধা এড়াতে পারেননি মান্দজুকিচ, শট নেওয়ার আগেই দৌড়ে এসে তা ঠেকিয়ে দেন ইংলিশ গোলরক্ষক।
অতিরিক্ত সময়ের দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য এই মান্দজুকিচই ক্রোয়েশিয়ার নায়ক। ডি বক্সের বামপ্রান্ত থেকে পেরিসিচের করা হেড গোলমুখে পেয়ে যান এই ফরোয়ার্ড। এরপর ডানদিকে নেওয়া তার নিচু শটে বল জায়গা খুঁজে পায় ইংলিশদের জালে। সেইসঙ্গে ক্রোয়েশিয়াও জায়গা করে নেয় স্বপ্নের ফাইনালে।

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি এইচ, এম রহিমুজ্জামান সুমন
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল্ আমিন সরকার্
নির্বাহী সম্পাদকঃ নাজমুল হুদা পারভেজ
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ফোনঃ ০৫৮২৫-৫৬০১৭, ফ্যাক্স: ০৫৮২৪৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩, ইমেইলঃ jugerkhabor@gmail.com
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচ¬িত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-১৪