আজকের তারিখ- Fri-19-07-2024

নাগেশ্বরীতে সাড়ে ২৮ লাখ টাকা হাতাতে মিথ্যা হত্যা মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নাগেশ্বরী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীর রায়গঞ্জে বাবার মুত্যুর পর তার বর্গা নেয়া সাড়ে ছয় বিঘা জমি সাড়ে ২৮ লাখ টাকায় বন্ধক নেয়ার দাবী তুলেছেন তার দুই ছেলে হাফিজুল ইসলাম হাবু ও হামিদুল ইসলাম। টাকা হাতাতে তাদের বাবাকে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগে আদালতে মামলা করেছেন। এসব অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ করে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগী মজিবর রহমান ও আজিজার রহমানের পরিবার। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় নাগেশ্বরী প্রেসক্লাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন লিখিত অভিযোগে ভুক্তভোগী মজিবর রহমান অভিযোগ করেন, উপজেলার রায়গঞ্জের রায়চান্দারপাড় এলাকার আব্দুল কুদ্দুস জীবদ্দশ্যায় তাদের সাড়ে ৬ বিঘা জমি বর্গা নিয়ে চাষ করতেন। প্রতি মৌসুমে ধান কাটা মাড়াইয়ের পর তাদের ধান বুঝে দিতেন। আব্দুল কুদ্দুসের দুই ছেলে ভারতের দিল্লীতে থাকতেন।
মজিবর রহমান দাবী করেন, এরমধ্যে গত ২৭ জুলাই রায়গঞ্জ বাজারে তার নিজস্ব মুদি দোকানে অসুস্থ হয়ে পড়েন আব্দুল কুদ্দস। পরে নাগেশ্বরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি হৃদযন্ত্রক্রীয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন বলে ওইদিন জানা যায়। পরে তার দাফন করা হয়। বাবার মৃত্যুর তিন সপ্তাহ পরে ভারতের দিল্লী থেকে আসেন তার দুই ছেলে হাফিজুল ইসলাম হাবু ও হামিদুল ইসলাম। আসার কয়েকদিন পরে দাবী তোলেন জমিগুলো ২৮ লাখ ৫০ হাজার টাকায় বন্দক নিয়েছেন তাদের বাবা। বিষয়টি নিয়ে রায়গঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ দেন তারা। পরে শালিশী বৈঠক বসলে বন্দক নেয়ার কোন প্রকার প্রমাণ দিতে না পারায় বিষয়টি অমীমাংসিত থেকে যায়। পরে হয়রানী ও জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগে আদালতে আর একটি মামলা করেন মজিবর রহমান। এদিকে মৃত্যুর ৯৫ দিন পর তার বাবাকে হত্যা করা হয়েছে দাবী করে আদালতে মামলা করেন ছেলে হাফিজুল ইসলাম হাবু। গত ১৩ নভেম্বর হামিদুল ইসলাম হাবুরা এলাকায় মানববন্ধনও করেন।
সংবাদ সম্মেলনে মজিবর রহমান বলেন, আব্দুল কুদ্দুস জমি বর্গা নেয়ার সময় তার ছেলেরা ভারতে থাকায় তারা কিছুই জানে না। তারা আসার পরে কোন অভিযোগ করেননি। পরবর্তীতে তারা অন্যের কু-পরামর্শে দাবীগুলো তুলছে। এতো টাকা জমি বন্দক নিলে তাদের স্ট্যাম্প থাকার কথা। ঋণগ্রস্থ হয়ে পড়ায় টাকা হাতিয়ে নিতে এসব মিথ্যা অভিযোগ করছে তারা। তিনি বিষয়টির সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা প্রকাশের আবেদন জানান সংবাদ সম্মেলনে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ এস, এম নুরুল আমিন সরকার
সম্পাদক কর্তৃক সারদা প্রেস, বাজার রোড, কুড়িগ্রাম থেকে মূদ্রিত ও মাচাবান্দা নামাচর, চিলমারী, কুড়িগ্রাম থেকে প্রকাশিত।
অফিসঃ উপজেলা পরিষদ মোড়, চিলমারী, কুড়িগ্রাম।
ঢাকা অফিসঃ শ্যাডো কমিউনিকেশন, ৮৫, নয়া পল্টন (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা- ১০০০।
ফোনঃ ০৫৮২৪-৫৬০৬২, মোবাইল: ০১৭৩৩-২৯৭৯৪৩,
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]
এই ওয়েবসাইট এর সকল লেখা,আলোকচিত্র,রেখাচিত্র,তথ্যচিত্র যুগেরখবর এর অনুমতি ছাড়া হুবহু বা আংশিক নকল করা সম্পূর্ন কপিরাইট আইনে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত যুগেরখবর.কম – ২০১৩-২০২৪
Design & Developed By ( Nurbakta Ali )